রাঙামাটি

ফ্রেন্ডস ক্লাব কমিউনিটি সেন্টারের বিরুদ্ধে একাট্টা এলাকাবাসি

আবাসিক এলাকায় এমন স্থাপনা নির্মাণ না করার অনুরোধে স্মারকলিপি

এবার রাঙামাটির বহুল আলোচিত ফ্রেন্ডস ক্লাব কমিউনিটি সেন্টার নির্মাণের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে সামিল হয়েছে তবলছড়ির আনন্দবিহার ও টেক্সটাইল এলাকার বাসিন্দারা।

বুধবার রাঙামাটির জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশীদকে দেয়া এক স্মারকলিপিতে তারা আবাসিক এলাকায় কমিউনিটি সেন্টার নির্মাণ এবং কাপ্তাই হ্রদ দখল করে বহুতল ভবন নির্মাণের প্রতিবাদ জানিয়ে,অবিলম্বে এই ‘অবৈধ ভবনটির নির্মাণ কাজ বন্ধ করার’ দাবি জানিয়েছেন।

স্মারকলিপিতে তারা বলেন-‘ আমরা রাঙামাটি শহরের তবলছড়ি আনন্দবিহার এবং টেক্সটাইল মার্কেট এলাকার বাসিন্দা। দশকের পর দশক ধরে আমরা এই এলাকায় বসবাস করে আসছি। সাম্প্রতিক সময়ে আমরা গভীর বেদনার সাথে লক্ষ্য করছি যে, আমাদের এলাকায় কাপ্তাই হ্রদের উপর অবৈধভাবে একটি বহুতল ভবন নির্মিত হচ্ছে। খোঁজ নিয়ে আমরা জানতে পারলাম যে, রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের অর্থায়নে সেখানে ফ্রেন্ডস ক্লাব কাম কমিউনিটি সেন্টারের সাততলা বিশাল ভবন নির্মিত হচ্ছে। বিষয়টি অত্যন্ত দু:খজনক।’

এতে আরো বলা হয়, ‘ একটি সম্পূর্ণ আবাসিক এলাকায়,তাও আবার অবৈধভাবে হ্রদ দখল করে সরকারি অর্থায়নে বেসরকারি ক্লাব কাম কমিউনিটি সেন্টার নির্মাণের এই উদ্যোগ অত্যন্ত দুঃখজনক। আমরা আশংকা করছি,ক্লাবটি নির্মিত হলে ওই এলাকার মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাপন ব্যহত হবে,কমিউনিটি সেন্টারের বিভিন্ন অনুষ্ঠানে উচ্চস্বরের শব্দযন্ত্রের কারণে শিশু কিশোরদের পড়াশুনা ক্ষতিগ্রস্ত হবে,বাসায় বসবাসরত প্রবীন ও পরিবারের নারীরাও স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে পড়বে, হ্রদ দখল করার কারণে তবলছড়ি একমাত্র লঞ্চঘাটটি বিপন্ন হবে এবং আমরা হ্রদের পাশ^বর্তী এই এলাকার মানুষের হ্রদের পানি ব্যবহার ও যোগাযোগ ব্যহত হবে।’

স্মারকলিপিতে জেলা প্রশাসকের প্রতি অনুরোধ জানিয়ে আরো বলা হয়-‘ অবিলম্বে অবৈধ এই ক্লাব কাম কমিউনিটি সেন্টারটির নির্মাণ কাজ বন্ধ করে আমাদের স্বাভাবিক জীবনযাপন নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিন। আপনার কাছে এ আমাদের বিনীত ও মানবিক অনুরোধ।’

স্মারকলিপিতে সাক্ষর করেছেন আনন্দবিহার পরিচালনা কমিটির সভাপতি কাজল তালুকদার, সিএনজি পরিবহন সমবায় সমিতির সভাপতি বিভাষ দেওয়ান,স্থানীয় পৌর কাউন্সিলর পুলক দে, রূপময় দেওয়ান, রুমি চাকমা, শান্তি ত্রিপুরা,দীপন তালুকদার,সুজিত দেওয়ান,মামা চিং,ডা: সুব্রত চাকমা,রাজীব দে, রাজন নন্দী,আশেক এলাহী লিটন,সুভাষ চাকমাসহ ৪২ জন স্থানীয় এলাকাবাসি ও  বিশিষ্টজন।

স্মারকলিপির অনুলিপি পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রনালয়,পরিবেশ অধিদপ্তর,জাতীয় নদী রক্ষা কমিশন,পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদসহ সরকারের বিভিন্ন দায়িত্বশীল জায়গায় দেয়া হয়েছে বলেও জানিয়েছেন প্রতিবাদকারিরা। একই সাথে তারা জেলা পরিষদকে এই কাজে অর্থায়ন থেকে বিরত থাকার অনুরোধ করবেন বলে জানিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের অর্থায়নে রাঙামাটি শহরের তবলছড়ি লঞ্চঘাটের নৌপ্রবাহে কাপ্তাই হ্রদের উপর অবৈধভাবে নির্মিত হচ্ছে সাত তলা ফ্রেন্ডস ক্লাব কাম কমিউনিটি সেন্টার। শহরের সবচে অভিজাত ক্লাব হিসেবে পরিচিত এই ক্লাবটির নির্মাণ কাজ বন্ধ করার জন্য ইতোমধ্যেই নির্দেশনা দিয়েছে জাতীয় নদী রক্ষা কমিশন ও রাঙামাটি সদর ভূমি অফিস। এছাড়া রাঙামাটির বিভিন্ন শ্রেণী পেশার ২২ জন বিশিষ্টজন ক্লাবটির নির্মাণ কাজ বন্ধ করার দাবিতে স্মারকলিপি দিয়েছেন জেলা প্রশাসককে।

MicroWeb Technology Ltd

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button