খাগড়াছড়িব্রেকিংলিড

ফোন হারিয়েছে বলে মোটর-সাইকেলে তুলে নেয় স্কুলছাত্রীকে, অতপর …

খাগড়াছড়ির দীঘিনালায় পঞ্চম শ্রেণির স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত শহিদুল ইসলাম (২৫) ছোটমেরুং এলাকার সোবাহানপুর ২নং কলোনির মোঃ আলী আহাম্মদের ছেলে। সে গত বছরের জুলাই মাসে ইয়াবাসহ পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয়েছিল, তার নামে দীঘিনালা থানায় মাদক আইনে মামলা রয়েছে।

ধর্ষণের শিকার শিশু ছাত্রী ও তার স্বজনদের বরাত দিয়ে পুলিশ জানায়, ঘটনাটি বুধবার সন্ধার দিকে। ওই ছাত্রী স্থানীয় একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পঞ্চম শ্রেণিতে অধ্যায়নরত। শহিদুল ওই ছাত্রীর দুঃসম্পর্কের আত্মীয়। ছাত্রীর দরিদ্র মা-বাবা দিনমজুরি করতে যায়। ছাত্রী বিকালে স্কুল থেকে ফেরার পর বাড়িতে আর কেউ ছিল না। তখন শহিদুল তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি হারিয়েছে বলে খোঁজার জন্য ওই ছাত্রীকে সঙ্গে করে মোটর সাইকেলে তোলে নিয়ে যায়। বাড়ি থেকে প্রায় তিন কিলোমিটার দূরে একটি নির্জন জঙ্গলে নিয়ে ছাত্রীকে ধর্ষণ করে। প্রায় ৩ঘন্টা পর আবার ছাত্রীকে মোটর-সাইকেলযোগে বাড়ির পাশে নামিয়ে দিয়ে যায়। এসময় ঘটনা কাউকে না বলার জন্যও হুমকি দিয়ে যায়। ছাত্রী বাড়িতে ঢুকে কান্না করে ঘটনা মা-বাবাকে জানায়। মেয়ের কাছ থেকে সব শুনে পুলিশের শরণাপন্ন হয় ওই ছাত্রীর পরিবার। এর পর স্থানীয়দের সহযোগীতায় রাতেই এই যুবককে গ্রেফতার করে পুলিশ।

দীঘিনালা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) উত্তম চন্দ্র দেব ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, স্কুলছাত্রীর মা বাদী হয়ে মামলা করেছেন। ঘটনার শিকার ছাত্রীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য জেলা সদর আধুনিক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে এবং গ্রেফতারকৃত শহিদুলকে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

20 − 11 =

Back to top button