পাহাড়ের অর্থনীতিব্রেকিংরাঙামাটিলিড

ফুডপ্যান্ডা এখন রাঙামাটি শহরে

এখন থেকে রাঙামাটিবাসীর পছন্দের রেস্টুরেন্টের খাবার মুহুর্তেই ঘরের দরজায় পৌঁছে দেবে দেশের শীর্ষ অনলাইন ফুড ডেলিভারি প্রতিষ্ঠান ফুডপ্যান্ডা।  গত ১৪ ডিসেম্বর, ২০২০ তারিখ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে রাঙামাটি শহরে যাত্রা শুরু করেছে ফুডপ্যান্ডা।

রাঙামাটি জেলায় ভ্রমণ স্থানের মধ্যে কাপ্তাই হ্রদ, ঝুলন্ত সেতু, শুভলং ঝর্ণা, সাজেক ভ্যালী, রাজবন বিহারনৌ বাহিনীর পিকনিক স্পট, কাপ্তাই বাঁধ ও কর্ণফুলি পানিবিদ্যুৎ কেন্দ্র, কাপ্তাই জাতীয় উদ্যান, বীরশ্রেষ্ঠ ল্যান্সনায়েক মুন্সী আব্দুর রউফ স্মৃতি ভাস্কর্য, উপজাতীয় জাদুঘর, কর্ণফুলি কাগজ কল ও বেতবুনিয়া ভূ-উপগ্রহ কেন্দ্র উল্লেখযোগ্য। এছাড়া প্যানোরমা জুম রেস্তোরা, পেদা টিং টিং রেস্তোরা, টুকটুক ইকো ভিলেজ, চিৎমরম বৌদ্ধ বিহার, বনশ্রী পর্যটন কমপ্লেক্স, ডলুছড়ি জেতবন বিহার ভ্রমণপিপাসুদের কাছে অন্যতম পছন্দের জায়গা।

রাঙামাটি সদরে যাত্রা শুরু প্রসঙ্গে ফুডপ্যান্ডা বাংলাদেশ- এর সিইও আম্বারিন রেজা বলেন,শুরু থেকেই গ্রাহক পর্যায়ে উল্লেখযোগ্য সাড়া অর্জনের পর আমরা আমাদের সেবা সকল জেলায় ছড়িয়ে দিচ্ছি। তারই অংশ হিসেবে ফুডপ্যান্ডা এখন রাঙামাটি সদরে। এখন থেকে রাঙামাটিবাসীর পছন্দের সব রেস্টুরেন্টের খাবার মুহুর্তেই ঘরের দরজায় পৌঁছে দিবে ফুডপ্যান্ডা। একই সাথে ফুডপ্যান্ডার মাধ্যমে নতুন কর্মসংস্থানের সৃষ্টি হবে ওই এলাকায়।

বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ ফুড ডেলিভারি অ্যাপ ফুডপ্যান্ডা মূলত ভোজনরসিকদের ভোজনকে আরও আরামদায়ক ও উপভোগ্য করে তোলার লক্ষ্যে স্থানীয় রেস্টুরেন্টগুলোর সাথে সমন্বয় করে গ্রাহকের পছন্দের খাবার দোরগোড়ায় পৌঁছে দেয়। বর্তমানে ফুডপ্যান্ডার রাইডাররা বাংলাদেশের ৬৫টি শহরে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্য ও বিভিন্ন রেস্টুরেন্টের খাবার সরবরাহ করছে। 

ফুডপ্যান্ডা অ্যাপ সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে ভিজিট করুন – https://www.facebook.com/foodpandaBangladesh

MicroWeb Technology Ltd

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button