ব্রেকিংরাঙামাটিলিড

প্রাণ ফিরেছে কাপ্তাই হ্রদে

তিন মাস বন্ধ থাকার পর দক্ষিণ এশিয়ার অন্যতম বৃহৎ কৃত্রিম জলাধার কাপ্তাই হ্রদে বুধবার মধ্য রাত থেকে মাছ ধরা শুরু হয়েছে। প্রতি বছরের মতো এবারও ১ মে থেকে কাপ্তাই হ্রদে মাছের বংশ বৃদ্ধি, হ্রদে অবমুক্ত করা পোনা মাছের সুষ্ঠু বৃদ্ধি, মাছের প্রাকৃতিক প্রজনন নিশ্চিতকরণে মাছ ধরা বন্ধ ছিল।

বুধবার রাত ১২টার পর নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ শেষ হলে মাছ ধরতে নামেন জেলেরা। তিন মাস পর আবার মাছ ব্যবসায়ী আর জেলেদের পদভারে মুখর হয়ে ওঠেছে ৭২৫ বর্গকিলোমিটার আয়তনের কৃত্রিম কাপ্তাই হ্রদ। মঙ্গলবার সকাল থেকেই জেলার প্রধান মৎস আহরণ কেন্দ্রে ছিল মাছ ব্যবসায়ীদের ভিড়।

সকালে রাঙামাটির বিএফডিসি মৎস্য পরিবহন ঘাটে গিয়ে দেখা যায়, ভোর ৮টা থেকে কাপ্তাই হ্রদের বিভিন্ন স্থান থেকে মাছ আসা শুরু করেছে। বোটগুলো বিএফডিসি ঘাটে নোঙর করার পর রাজস্ব দিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

মৎস্য ব্যবসায়ী কার্তিক দে বলেন, ‘গতবারের চেয়ে এবার ব্যবসা ভালো হবে আশা করছি। কারণ বন্ধের মধ্যে ব্যবস্থাপনা ভালো ছিল। তাই আমরা আশা করছি গতবারের চেয়ে এবার মাছের পরিমাণ ভালো হবে।’ এছাড়া যেভাবে মাছ আসছে তাতে মনে হচ্ছে এবার আশানুরূপ ব্যবসা হবে।

রাঙামাটি মৎস্য ব্যবসায়ী বহুমুখী সমবায় সমিতির সাধারণ সম্পাদক উদয়ন বড়–য়া বলেন, মোটামুটি ভালোই মাছ আসছে। তবে ছোট মাছের সংখ্যা বেশি। এবার কাপ্তাই হ্রদে দেরিতে পানি আসার কারণে মাছ এখনো তেমন একটা বৃদ্ধি পেতে পারেনি।

উল্লেখ্য, গত ১ মে থেকে ৩১ জুলাই পর্যন্ত কাপ্তাই হ্রদে মাছ ধরা ও পরিবহনের ওপরে নিষেধাজ্ঞা আরোপ ছিল।

MicroWeb Technology Ltd

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Back to top button