নীড় পাতা / ফিচার / খেলার মাঠ / প্রথম বিভাগ ফুটবল লীগের পর্দা নামছে আজ
parbatyachattagram

প্রথম বিভাগ ফুটবল লীগের পর্দা নামছে আজ

রাঙামাটি মারী স্টেডিয়াম বিকাল তিনটা গ্যালারি কিংবা গ্যালারির বাইরের ফুটপাত বা রাস্তা অসংখ্য দর্শক উপভোগ করছেন ফুটবল। আজকের পর থেকে তেমনটি আর দেখা যাবে না। এক মাসের চেয়ে বেশি সময় ধরে সকলে গ্যালারিতে অপেক্ষা করত ফুটবল খেলা উপভোগ করার জন্য। দর্শক খড়ায় থাকে স্টেডিয়াম প্রবাদটিও মিথ্যা প্রমাণ করে দিয়েছে রাঙামাটির ফুটবল প্রেমীরা।

দীর্ঘ চার বছর পর মাঠে গড়ায় ফুটবল। এতে প্রাণ ফিরে পায় স্টেডিয়াম পাড়া। প্রতিদিন মুখরিত থাকতো মাঠ। দীর্ঘ এক মাসেরও বেশি সময়ে মাঠে গড়িয়েছে ৩৫টি ম্যাচ। আজ লীগের শেষ ম্যাচ এ ম্যাচের মধ্য দিয়ে পর্দা নামবে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড প্রথম বিভাগ ফুটবল লীগের। এমন লীগ আয়োজনে যেমন খুশি জেলা ক্রীড়া সংস্থার কর্তারা তেমনই উচ্ছ্বসিত ক্রীড়া প্রেমীরাও। সুষ্ঠুভাবে লীগ শেষ করতে পারার জন্য সকলকে কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন ক্রীড়া সংস্থার কর্মকর্তারা।

লীগে রাঙামাটি শহরের মোট ১২টি ক্লাব দুটি গ্রুপে ভাগ হয়ে প্রথম রাউন্ড খেলা শেষ করে। দুই গ্রুপ থেকে দুটি করে দল খেলেছে সুপার লীগ। ইতোমধ্যে রাঙামাটির বড় বাজেটের দল ছদক ক্লাব তাদের শিরোপা নিশ্চিত করেছে। রানার্স আপ হচ্ছে প্রতিভাস ক্লাব। লীগে স্থানীয় খেলোয়াড়রের পাশাপাশি ছিল দেশের বিভিন্ন স্থানের ভাল মানের খেলোয়াড় এমনকি দুটি ক্লাবে উপস্থিতি ছিল বিদেশি খেলোয়াড়রও। বিদেশি খেলোয়াড়দের ফুটবল শিল্পে মুগ্ধ হয়েছে দর্শকরা।

পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের অর্থায়নে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড প্রথম বিভাগ ফুটবল লীগ আয়োজন করে। সমাপনী অনুষ্ঠানে বৃহস্পতিবার প্রধান অতিথি থাকবেন পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরা।
প্রথম বিভাগ ফুটবল লীগে অংশগ্রহণকারী প্রত্যেক দলকে আশি হাজার টাকা প্রদান করা হয়। চ্যাম্পিয়ন দলকে পঞ্চাশ হাজার টাকা এবং রানার্স আপ দলকে ত্রিশ হাজার টাকা পুরস্কার দেয়া হবে। লীগের শেষ খেলায় মারী স্টেডিয়ামে বিকাল তিনটায় ছদক ক্লাবের বিপক্ষে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে জেলা মুকুল ফৌজ।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

চুক্তি বাস্তবায়নে তরুণ সমাজকে এগিয়ে আসার আহ্বান ঊষাতনের

পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তি বাস্তবায়নের লক্ষ্যে তরুণ সমাজকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়ে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

eighteen + seventeen =