করোনাভাইরাস আপডেটখাগড়াছড়িব্রেকিং

পির্নসেন ত্রিপুরার মুখে হাসি ফোটালো যুব-স্বেচ্ছাসেবক ও সৈনিকলীগ

খাগড়াছড়ি জেলার মহালছড়িতে বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাস(কোভিড-১৯) এর প্রভাবে যৌথ খামার ত্রিপুরা গ্রামের এক কৃষক পির্নসেন ত্রিপুরা শ্রমিকের অভাবে জমির পাকা ধান বাড়িতে তুলতে পারছিলেন না। ৮ মে শুক্রবার মহালছড়ি উপজেলার যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও বঙ্গবন্ধু সৈনিকলীগ নেতৃবৃন্দ বিপাকে পড়া কৃষক পির্নসেন ত্রিপুরার ১ একর জমির পাকা ধান কেটে বাড়িতে তুলে দিয়েছেন।

এ সময় উপজেলা যুবলীগ সভাপতি দীপন ধর, সাধারন সম্পাদক রেজাউল হক মাসুদ, উপজেলা সেচ্ছাসেবক লীগ সভাপতি লিটন আচার্য, সাধারন সম্পাদক মো: মনির, উপজেলা বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগ সভাপতি বাবলু চৌধুরীসহ ২৫ জন নেতাকর্মী উক্ত কার্যক্রমে অংশ গ্রহন করেন।

ধান কাটাকালীন সময় বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগ এর সভাপতি বাবলু চৌধুরী বলেন, বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের প্রভাবে অসহায় হয়ে পড়া মানুষের পাশে থাকার নির্দেশ দিয়েছিলেন প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা। এরই ধারাবাহিকতায় যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও বঙ্গবন্ধু সৈনিকলীগ নেতৃবৃন্দ মিলে যৌথ সহযোগিতায় মহালছড়িতে করোনা ভাইরাসের প্রভাবে অসহায় ও বিপাকে পড়া কৃষকের ধান কেটে তুলে দিচ্ছেন। তিনি আরো বলেন, এ ধান কাটা কর্মসূচীতে অনেকে রোজা রেখে প্রখর রোদে পুড়ে অংশগ্রহন করেছেন।

ধান কাটা নিয়ে কৃষক পির্নসেন ত্রিপুরা বলেন, করোনার প্রভাবে প্রায় যার যার এলাকায় ঘরবন্দি হয়ে পড়ায় ধান কাটা শ্রমিক সংকট দেখা দিলে তিনি একপ্রকার দিশেহারা হয়ে পড়েছিলেন। তাঁর এ দুঃসময়ে স্বেচ্ছাসেবক লীগ, যুবলীগ ও বঙ্গবন্ধু সৈনিক লীগ এর কর্মীরা ধান কেটে তুলে দিয়ে তিনি উপকৃত হয়েছেন। সেজন্য তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ দলীয় নেতাকর্মীদের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

five × four =

Back to top button