নীড় পাতা / পার্বত্য উন্নয়ন / পাহাড় ধসের সময় সম্প্রীতির উন্নয়ন হয়েছে

পাহাড় ধসের সময় সম্প্রীতির উন্নয়ন হয়েছে

পাহাড়ধসে সম্প্রতির উন্নয়ন হয়েছে মন্তব্য করে রাঙামাটি জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা বলেন, পাহাড়ধসে নিহতদের উদ্ধার কাজে পাহাড়ি বাঙালি বিভেদ ছিল না। কে পাহাড়ি কে বাঙালি তা না দেখে সাধারণ মানুষ উদ্ধার কাজে তৎপর ভূমিকা রেখেছে।

বৃহস্পতিবার বিকালে জেলা পরিষদের সভা কক্ষে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি রাঙামাটি জেলা ইউনিটের আয়োজিত মতবিনিময় সভায় তিনি এসব বলেন।

বৃষ কেতু চাকমা আরও বলেন, পাহাড়ধস ও পার্বত্য এলাকায় দুর্যোগ কবলিত আর্তমানুষের জন্য কাজ করে যাচ্ছে রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি। সরকার অন্যান্য সংস্থাগুলো যদি রেডক্রিসেন্টকে আরও বেশি সাহায্য করে এতে করে তাদের কাজ আরও অগ্রসর হবে।

তিনি বলেন, বিভিন্ন উদ্ধারকারী বাহিনীর বিভিন্ন সরঞ্জাম থাকলেও রেড ক্রিসেন্টের তেমন কিছুই নেই, কিন্তু রেড ক্রিসেন্ট সদস্যরা নিজেদের মনোবল দিয়ে যে কাজ করে যাচ্ছে তা অবশ্যই প্রশংসার দাবিদার।

এসময় জেলা রেড ক্রিসেন্টের ইউনিট অফিসার আজরু উদ্দিন সাফদারের সঞ্চালনায় বক্তব্য রাখেন- রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটির ভাইস চেয়ারম্যান সাইফুল ইসলাম ভূট্টো, প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক আনোয়ার আল হক, রিপোর্টাস ইউনিটির সভাপতি সুশীল প্রসাদ চাকমা, সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি মিলটন বড়ুয়া প্রমুখ। এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন রেড ক্রিসেন্টের রাঙামাটি ইউনিটের সাধারণ সম্পাদক বখতিয়ার উদ্দিন।

এসময় বক্তারা বলেন, দুর্যোগপূর্ণ সময়ে সবসময়ই রেড ক্রিসেন্ট সাহসী ভূমিকা রেখে আসছে। সামনে দিনগুলোতেও যেকোন দুর্যোগ মোকাবেলায় রেড ক্রিসেন্টকে সতর্ক অবস্থানে সাহসী ভূমিকা রাখতে হবে।

আরো দেখুন

পিডব্লিউডি ডিপ্লোমা প্রকৌশলী সমিতির অর্থ সহায়তা

বাংলাদেশ পিডব্লিউডি ডিপ্লোমা প্রকৌশলী সমিতি কেন্দ্রীয় কমিটির উদ্যোগে গত ১৩ জুন রাঙামাটির ভয়াবহ প্রাকৃতিক বিপর্যয়ে …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

fifteen − six =