বান্দরবানব্রেকিং

‘পাহাড়ে সন্ত্রাস চাঁদাবাজের স্থান হবে না’-বললেন বীর বাহাদুর

পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর (উশৈসিং) এমপি বলেছেন, পাহাড়ের মাটিতে সন্ত্রাসী ও চাঁদাবাজদের স্থান হবে না। এলাকায় শান্তি থাকলে উন্নয়ন হবে। বান্দরবান জেলার মধ্যে দুর্গম কুরুকপাতা ইউনিয়নের সার্বিক উন্নয়নকে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। অচিরেই এই ইউনিয়নে মাধ্যমিক বিদ্যালয় চালু, ভৌত অবকাঠামো নির্মাণ ও ক্লিনিক স্থাপনে উদ্যোগ নেওয়া হবে।
শনিবার নবগঠিত কুরুকপাতা ইউনিয়নবাসীর পক্ষে আয়োজিত নাগরিক সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

কুরুকপাতা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ক্রাতপং মুরুং এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত নাগরিক সংবর্ধনায় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের (সিএইচটিডিবি) ভাইস চেয়ারম্যান তরুণ কান্তি ঘোষ, আলীকদম জোন কমান্ডার লে. কর্নেল মো. মাহাবুবুর রহমান, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সফিউল আলম, আঞ্চলিক পরিষদ সদস্য কাজল কান্তি দাশ, বান্দরবান পৌর মেয়র ইসলাম বেবী, সহকারী পুলিশ সুপার ইয়াছিন আরাফাত, নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল আজিজ, লামা বন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা কামাল উদ্দিন আহমেদ, বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য মোজাম্মেল হক বাহাদুর, থোয়াইচাহ্লা মার্মা, লক্ষ্মীপদ দাশ, চিংইয়ং ¤্রাে, তিংতিংম্যা, ক্যসাপ্রু ও সিভিল সার্জন অংশৈপ্রু চৌধুরী প্রমুখ।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে বীর বাহাদুর এমপি আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপে আলীকদম-কুরুকপাতা-পোয়ামুহুরী সড়ক নির্মাণে ৩৭৬ কোটি টাকা বরাদ্দ হয়েছে। যা সেনাবাহিনী ইতোমধ্যেই বাস্তবায়ন করছে। সন্ত্রাস ও চাঁদাবাজি না থাকলে এলাকার উন্নয়ন অব্যাহত থাকবে জানিয়ে পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার আবারো ক্ষমতায় আসলে দেশের মানুষ উন্নয়নের সুফল ভোগ করবে।

অনুষ্ঠান শেষে সিএইচটিডিবি’র অর্থায়নে ৩৫০ পরিবারকে ৬৫ ওয়ার্ডের একটি করে সোলার প্যানেল, ৩৫ পরিবারকে একটি করে গরু, দুস্থ পরিবারের মাঝে ১০টি সেলাই মেশিন ও কৃষকদের ২৫টি স্প্রে মেশিন বিতরণ করা হয়।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

ি কমেন্ট

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: