ব্রেকিংরাঙামাটিলিড

পাহাড়ের ‘ভোট ডাকাত’দের প্রতিহতের ঘোষণা দীপংকর তালুকদারের

‘পার্বত্য চট্টগ্রামে দৃশ্যমান যা কিছু উন্নয়ন হয়েছে সব কিছুর অবদান জননেত্রী শেখ হাসিনার। একটি পক্ষ এই উন্নয়নকে বাধাগ্রস্থ করতে চায়। তারা অস্ত্রের ভয় দেখিয়ে সাধারণ জনগণকে অপহরণ, হত্যা, গুম ও খুন করে শান্তির পরিবেশকে অশান্তি করে তুলতে চায়। তারা অস্ত্র দিয়ে সাধারণ মানুষের ভোট ডাকাতি করেছে। এবার আর তাদেরকে সেই সুযোগ দেয়া হবে না। এবার জনসাধারণকে নিয়েই সেই ডাকাতদের প্রতিহত করা হবে। তার জন্য সকলকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে।’

রাঙামাটির লংগদু উপজেলায় গুলশাখালী বর্ডার গার্ড কলেজের এক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেছেন সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদার।

মহান বিজয় দিবস-২০১৭ উদযাপন উপলক্ষে রাঙামাটির লংগদু উপজেলার রাজনগর বিজিবি জোন, গুলশাখালী বর্ডার গার্ড মডেল কলেজ ও ৩নং গুলশাখালী ইউনিয়ন পরিষদের যৌথ উদ্যোগে আলোচনা সভা, মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এখানেই প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক সাবেক প্রতিমন্ত্রী ও রাঙামাটি জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি দীপংকর তালুকদার।

উপজেলার গুলশাখালী বর্ডার গার্ড মডেল কলেজ মাঠে আয়োজিত এসব অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, রাজনগর বিজিবি জোন কমান্ডারের পক্ষে জোনের আরএমও ক্যাপ্টেন আব্দুল্লাহ আল মামুন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন, রাঙ্গামাটি মহিলা সাংসদ ফিরোজা বেগম চিনু। তিনি বলেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম বাংলাদেশের একটি অভিচ্ছেদ্য অংশ। এখানে বসবাসকারীরা সকলেই এই দেশের নাগরিক। আমাদের জননেতা দীপংকর তালুকদার পার্বত্যবাসীদের উন্নয়নে ধারাবাহিকভাবে যে সকল কাজ করে যাচ্ছিলেন তা আজ ব্যাহত হচ্ছে। শুধু মাত্র সংসদে প্রতিনিধিত্ব না থাকার কারণে। এক শ্রেণীর অবৈধ অস্ত্রধারী সন্ত্রাসী গোষ্ঠিরা পাহাড়ে উন্নয়ন বাধা গ্রস্থ করে যাচ্ছে। তিনি বলেন যতক্ষ পর্যন্ত অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার করা হবেনা ততক্ষণ পর্যন্ত পাহাড়ে শান্তি আসবে না। তাই, উন্নয়নের স্বার্থে সকলে মিলে অবৈধ অস্ত্রধারীদের দৌড়াতে হবে।

গুলশাখালী বর্ডার গার্ড নিন্ম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মাসুদ রানার পরিচালনায় অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি মোঃ রুহুল আমীন, রাঙামাটি জেলা পরিষদের সদস্য মোঃ জানে আলম, লংগদু থানার ওসি রঞ্জন কুমার সামন্ত, গুলশাখালী ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ আবু নাছির।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন, কলেজ পরিচালনা কমিটির সদস্য ও সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রহীম। অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, গুলশাখালী ইউনিয়ন আ.লীগের সাধারণ সম্পাদক শহীদুল ইসলাম কামাল, উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মোঃ শফিকুল ইসলাম।

পরে প্রধান অতিথি, কলেজের ছাত্র ছাত্রী ও স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধাদের হাতে শুভেচ্ছা উপহার তুলে দেন এবং সংবর্ধনা প্রদান করেন। সব শেষে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান উপভোগ করেন।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

ি কমেন্ট

  1. রাংগামাটি শহর এক ওয়াজ মাহফিলর শহরে পরিণত হয়েছে, প্রতিদিন চলছে সেখানে উচ্চ শব্দের মাইক ব্যবহার করে ওয়াজ মাহফিল। এই মাহফিল চলে রাত দুটো পর্যন্ত। শব্দ দূষনের শিকার সকল ধর্মের মানুষ। প্রশাসন বলে তাদের অনুমোদন ১০ টা পর্যন্ত কিন্তু বাস্তবে কি হয়??

    1. ওই চুদানির পুয়া লাথি মারিয়ারে ড্রেনের মধ্য ফালাই দিয়ুম,,বাইনচুদের জুম্মোর ঘরে জুম্মো,,তোরে মাদারচোদ তোর বুদ্ধও বাঁচাইত ন পারিব আর হাতের তুন। হালারপো জংগলির ঘরের জংলি

    2. পাডা তোরো পুলিশ তোরতে ড্রেনের পানিতে চুবায়ুম তোর তোর লাগে লগে পুলিশরে ও চুবায়ুম।হাজার দের হাজার মানুষের মাইর খাইতে চাইলে তোর বাপ দাদা চোদ্দঘুস্টি বেকগুনরে লই আইচ।

    3. Emu Raj, শালার সেটেলারের বাচ্চা কুত্তা। মাদারচুদ তুই একটা হারামখোর। তোর মারে চুদি আয় কে কারে চুবাইতে পারে, হালার তোরে পানিত না শক্ত মাটিত চুবামু।
      তুই দীপঙ্করের অবৈধ সন্তান মাগীর পুত।

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: