রাঙামাটি

পাহাড়ধসের ঝুঁকিতে কাপ্তাইয়ের পাঁচশ পরিবার

কাপ্তাই প্রতিনিধি
পাহাড় ধসের ঝুঁকিতে রয়েছে রাঙামাটির কাপ্তাই উপজেলার ৪নং কাপ্তাই ইউনিয়নের লগগেইট ও ঢাকাইয়া কলোনির ৫শ’ পরিবার। ভারী বর্ষণ হলে যেকোন মুহূর্তে বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশঙ্কা করছেন স্থানীয় প্রশাসন এবং জনপ্রতিনিধিরা। প্রতিবছর বর্ষা মৌসুম এলে অতিবর্ষণের ফলে মাটি চাপা পড়ে হতাহতের ঘটনা ঘটে এ এলাকায়। ফলে এমন ঘটনার পুনরাবৃত্তি যেন না ঘটে সেজন্য কাপ্তাই উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সর্তক করা হচ্ছে পাহাড়ের পাদদেশে বসবাসকারী জনসাধারণকে।

গত রোববার (৬ জুন) বিকেল ৪টা হতে ৬টা পর্যন্ত কাপ্তাই উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে কাপ্তাই লগগেইট ও ঢাকাইয়া কলোনির ঘরে ঘরে গিয়ে প্রচার-প্রচারণা এবং জনগণকে সচেতন করা হয়েছে। কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুনতাসির জাহানের নেতৃত্বে উপজেলা প্রশাসন ও কাপ্তাই ইউনিয়ন পরিষদের জনপ্রতিনিধিরা ঝুঁকিপূর্ণ স্থানে বসবাসকারীদের কাপ্তাই উচ্চ বিদ্যালয় আশ্রয়কেন্দ্রে চলে আসার জন্য অনুরোধ জানান। এসময় উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা আব্দুল হান্নান, কাপ্তাই ইউপি চেয়ারম্যান প্রকৌশলী আবদুল লতিফ, ইউপি সদস্য সজিবুর রহমানসহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধি এবং গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুনতাসির জাহান সাংবাদিকদের জানান, এখন বৃষ্টির মৌসুম। ভারী বৃষ্টি হলে যেকোন সময় পাহাড় ধসের ঘটনা ঘটতে পারে। তাই তারা ঝুঁকিপূর্ণ এলাকায় বসবাসকারীদের নিরাপদ আশ্রয় হিসাবে কাপ্তাই উচ্চ বিদ্যালয় আশ্রয়কেন্দ্রে নিজ উদ্যোগে চলে যাওয়ার জন্য অনুরোধ জানিয়েছি।

কাপ্তাই ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান প্রকৌশলী আবদুল লতিফ বলেন, অতি বর্ষণের ফলে এই এলাকায় পাহাড়ধসে পূর্বেও হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। তাই তারা দুর্ঘটনা এড়াতে আগে থেকেই বসবাসকারীদের নিরাপদ আশ্রয়ে যাওয়ার অনুরোধ করে আসছি। স্থানীয় ইউপি সদস্য সজিবুর রহমান জানান, লগগেইট এবং ঢাকাইয়া কলোনিতে প্রায় ৫শ’ পরিবারের বসবাস। অধিকাংশ পরিবার পাহাড়ধসের ঝুঁকিতে বসবাস করে আসছে। উপজেলা প্রশাসনকে সাথে নিয়ে বিশেষ করে বর্ষা মৌসুমে তাদেরকে কাপ্তাই উচ্চ বিদ্যালয় আশ্রয়কেন্দ্রে আসার জন্য অনুরোধ করেছি।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Back to top button