রাঙামাটি

পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে নারী মারধরের শিকার

নিজস্ব প্রতিবেদক ॥
পাওনা টাকা চাইতে গিয়ে প্রহারের শিকার হয়েছেন এক নারী। লংগদুর ভাইবোনছড়া গ্রামের মৃত আ. ওহাব সিকদারের মেয়ে মমতাজ বেগম লিপি মারধরের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ করেন। বৃহস্পতিবার সকালে রাঙামাটি প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে এই অভিযোগ জানান।

লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, আমার পিতা উপজেলায় আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন। দলের জন্য তিনি আমৃত্যু কাজ করে গেছেন। এজন্য কিছু স্বার্থান্বেষী মহল তার বিরুদ্ধে অপপ্রচারে লিপ্ত ছিল। আমার স্বামী আমাদের ভরণপোষণ না দেয়ায় আমি আদালতে মামলা করি। পরে আদালতের মাধ্যমে আমার স্বামী থেকে ৫১ হাজার টাকা ক্ষতিপূরণ পাই। সে টাকার মধ্যে ৪০ হাজার টাকা আমি আমার চাচা মো. আবুল কালামের কাছে জমা রাখি। গত ১১ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় ভাইবোনছড়া বাজারের মো. হাসেম সওদাগরের দোকানের সামনে আমার পাওনা টাকা খুঁজতে গেলে আমার চাচা আমাকে মারধর করে। এসময় আবু জাফর, আমির বাদশা ও হাবিব মেম্বারও আমাকে মারধর করে। এরপর আমি বিষয়টি থানায় জানালেও তারা কোন ব্যবস্থা নেয়নি। আমি লংগদু উপজেলা কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য ভর্তি হওয়ার পর আমাকে জেলা হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করে। জেলা হাসপাতাল থেকে আমাকে চট্টগ্রামে চিকিৎসা নেয়ার কথা জানায়। তিনি বলেন, আমার দুই মেয়ে নিয়ে আমি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। আমি আমার পাওনা টাকা ও আমার ওপর মারধরের সুষ্ঠু বিচার চাই।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Back to top button