ব্রেকিংরাঙামাটিলিড

পরিচ্ছন্নতাকর্মীকে পেটালো টেক্সী চালকেরা,প্রতিবাদে অচল শহর

তুচ্ছ ঘটনায় রাঙামাটিবাসিকে জিম্মি করার অভিযোগ যাদের বিরুদ্ধে হরহামেশাই,সেই অটোরিকশা চালকদের ‘স্বেচ্ছাচারিতা’র কঠোর প্রতিবাদ করলো রাঙামাটি পৌরসভার পরিচ্ছন্নতা কর্মীরা।
বুধবার সকালে শহরের তবলছড়িতে আবর্জনা পরিষ্কার করতে যাওয়া পৌরসভার পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের তুচ্ছ ঘটনায় নাজেহাল করে তবলছড়ি টেক্সী স্টেশনের কয়েকজন চালক। এসময় একজন কর্মীকে বেদম মারপিটও করার অভিযোগ উঠেছে। সহকর্মীদের নাজেহাল করার প্রতিবাদে তাৎক্সনিক রাঙামাটি পৌরসভার সামনে শহরের প্রধান সড়ক অবরোধ করে পরিচ্ছন্নতাকর্মী ও পৌরসভার সকল কর্মচারিরা। এসময় দেঢ় ঘন্টার জন্য অচল হয়ে পড়ে পুরো শহর। পরে প্রশাসনের আশ্বাসে অবরোধ তুলে নেয় পৌর কর্মচারিরা,তবে দোষীদের ২৪ ঘন্টার মধ্যে গ্রেফতার করা না হলে শুক্রবার থেকে শহরে পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম বন্ধ এবং পৌরসভার অন্যান্য সেবা বন্ধ করে দেয়ার হুমকি দিয়েছে পৌর কর্মচারী সংসদ।

পৌরসভার পরিচ্ছন্নতা বিভাগের কর্মী চিত্তরঞ্জন চাকমা বলেন, প্রতিদিনের মত বুধবার সকালে আমরা তবলছড়ি বাজারে আবর্জনা পরিষ্কার করতে যাই। সে সময়ে আমরা সকল আবর্জনা গাড়িতে তুলে অন্য একটি আবর্জনার ড্রাম আনতে গেলে কয়েকজন সিএনজি চালক আমাদেরকে বিনা উস্কানিতে কটুক্তি করে এবং আমাদের বিপ্লব দাশ,পিন্টু দাশ এবং আমার উপর হামলা করে মারধর করে। পরে আমরা সেখান থেকে চলে আসি এবং পৌরসভার সামনে গাড়ি অবরোধ করি।

পরিচ্ছন্নতাকর্মীদের উপর সিএনজি চালকের হামলার প্রতিবাদে দেড় ঘন্টা রাঙামাটি-চট্টগ্রাম সড়ক অবরোধ করে প্রতিবাদ করেছে রাঙামাটি পৌরসভার কর্মচারীরা। পরে প্রশাসনের হস্তক্ষেপে এবং ন্যায়বিচারের আশ্বাসে অবরোধ তুলে নেওয়া হয় এবং স্বাভাবিক হয় রাঙামাটি-চট্টগ্রাম সড়ক।

রাঙামাটি পৌর কর্মচারী সংসদের সভাপতি একেএম বশির আহমদ বলেন, কর্মীরা প্রতিদিনের মত বুধবার সকালে তবলছড়ি বাজারে আবর্জনা পরিষ্কার করতে গেলে সিএনজি চালকদের সাথে তুচ্ছ ঘটনা কেন্দ্র করে বাক-বিতন্ডা হয়। তারা সে সময় আমাদের কর্মীদের ওপরে হামলা করে। পরে পৌরসভার কর্মীরা পৌরসভার সামনে এসে গাড়ি অবরোধ করলে, সেখানে সিএনজি শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি বেশ কয়েকজন সিএনজি চালকসহ এসে আমার কর্মীদের ওপরে আবারো হামলার চেষ্টা করে।

তিনি আরো জানান, এঘটনার সাথে পৌরসভার উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা জড়িয়ে যায়। কারণ ঘটনা চলাকালিন পৌরসভার উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে গেলে তারাও হামলার শিকার হয়। সে জন্যে আমরা থানায় মামলা করি। তিনি আরো জানান, আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে যদি সেই সিএনজি চালককে গ্রেপ্তারসহ শাস্তি দেওয়া না হয় তবে পৌরসভার কর্মচারীরা কোন কাজ করবে না। শহরের আবর্জনা পরিষ্কার করা থেকে বিরত থাকবে। এছাড়া পৌরসভার অন্যান্য কাজও করবে না বলে জানিয়েছেন এই নেতা।

রাঙামাটি অটোরিক্সা শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি মো: অলি আহম্মদ বলেন, পৌরসভার কর্মচারীরা তবলছড়ি বাজারে আবর্জনা পরিষ্কার করতে গেলে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে একটা ভুল বুঝাবুঝি হয়। পরে তারা গাড়ি অবরোধ করলে আমরা প্রশাসনের সহযোগিতায় অবরোধ তুলে নিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করার চেষ্টা করি।

রাঙামাটি কোতয়ালী থানার উপ-পরিদর্শক রবিউল ইসলাম জানান, বুধবার সকালে তবলছড়ি বাজারে পৌরসভার কর্মচারীরা আবর্জনা পরিষ্কার করতে এলে বাজারে বেশ কিছু লোকের সাথে বাকবিতন্ডা হয়। বাজারের লোকদের অভিযোগ, বুধবার হচ্ছে সাপ্তাহিক হাটবার। তাই পৌর কর্মচারীদের আরো আগে আসলে ভালো হতো। এ বিষয় নিয়ে দুই পক্ষের বাকবিতর্কে সিএনজি চালকরাও ছিলো। এক পর্যায়ে উভয় পক্ষের মধ্যে হাতাহাতি হয়। ঘটনাস্থলে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করেন। পরবর্তীতে আবারো পৌরসভার সামনে গিয়ে অবরোধ করেন পৌরসভার কর্মচারীরা। সেখানেও পুলিশ পরিস্থিতি স্বাভাবিক করেন এবং অবরোধ কারিদের সরিয়ে দেন।

তিনি আরো জানান, রাঙামাটি পৌরসভার পক্ষ থেকে থানায় একটি অভিযোগ করা হয়েছে। এ অভিযোগের প্রযোজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান তিনি।

এদিকে রাঙামাটি পৌর কর্মচারী সংসদ সভাপতি এ.কে.এম বশির হোসেন ও সাধারণ সম্পাদক সনতৎ বড়–য়া প্রেরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়, তবলছড়ি বাজারে বর্জ্য অপসারণের কাজে নিয়োজিত সেবক বিপ্লব দাশ, পিন্টু দাশ ও চালক চিত্তরঞ্জন চাকমাকে সিএনজি চালক মো. জাহাঙ্গীর গং দ্বারা মারধর এবং সহকারী প্রকৌশলীকে সিএনজি চালক সমিতির সভাপতি অলি কর্তৃক শারিরীক লাঞ্চিতের প্রতিবাদে এজাহারভুক্ত আসামিদের আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে গ্রেপ্তার ও শাস্তির দাবি জানিয়েছে। অন্যথায় শুক্রবার থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য সকল প্রকার বর্জ্য অপসারণ বন্ধ থাকবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে উল্লেখ করা হয়।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

ি কমেন্ট

  1. অপরাধীদের শাস্তি নিশ্চিত করতে হবে এবং প্রশাসনের কাছে জোরালো দাবি জানাচ্ছি যে, দ্রুত রাংগামাটি শহরে টাউন সার্ভিস / লোকাল বাস সার্ভিস চালু করা হোক । রাংগামাটির সাধারণ জনগণকে এই ভোগান্তির হাত থেকে রক্ষা করুন ।

Leave a Reply

Back to top button
%d bloggers like this: