রাঙামাটি

পদ হারাচ্ছেন ফাহিম কাদের !

সাত সদস্যের তদন্ত কমিটির সর্বসম্মত রিপোর্টে

রাঙামাটি শহরের বনরূপায় বিএম শপিং কমপ্লেক্সে ব্যবসায়িদের সাথে অসদাচরণের অভিযোগের পর জেলা ছাত্রলীগের উপ অর্থ সম্পাদক ফাহিম কাদেরকে তার পদ থেকে থেকে অব্যাহতি দেয়ার সুপারিশ করেছে জেলা ছাত্রলীগের গঠিত তদন্ত কমিটি। সাত সদস্যের কমিটি সর্বসম্মতিক্রমে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলে জানিয়েছে একটি দায়িত্বশীল সূত্র।

এর আগে ১৫ অক্টোবর বিএম শপিং কমপ্লেক্স ব্যবসায়ি কল্যাণ সমিতির সভাপতি আজগর আলী এবং সাধারন সম্পাদক বিএম জাহান লিটন জেলা ছাত্রলীগ সভাপতি/সম্পাদক বরাবরে দেয়া এক আবেদনে অভিযোগ করেছিলেন যে, জেলা ছাত্রলীগের উপ অর্থ সম্পাদক ফাহিম কাদের তার বাবার সাথে প্রতিবেশী ব্যবসায়ির একটি ব্যবসায়িক বিরোধের ঘটনার জেরে নিজের সাঙ্গপাঙ্গ নিয়ে মার্কেটে এসে মার্কেটের ব্যবসায়ি ও ব্যবসায়ি নেতাদের অকথ্য ভাষায় গালাগালি ও হাত পা কেটে ফেলাসহ মেরে ফেলার হুমকি দেয়।’ ফাহিম ছাত্রলীগের পরিচয় ব্যবহার করায় ব্যবসায়িরা উদ্বেগ জানিয়ে তার বিরুদ্ধে সাংগঠনিক পদক্ষেপ নেয়ার দাবি জানান জেলা ছাত্রলীগের কাছে এবং তারা তাদের এই আবেদনের অনুলিপি রাঙামাটির সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার,সাধারন সম্পাদক মুছা মাতব্বর এবং পৌর মেয়র যুবলীগ সভাপতি আকবর হোসেন চৌধুরীকেও দেয়। এরপরই জেলা ছাত্রলীগ ঘটনাতদন্তে ৭ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে। এই কমিটি গত ২২ অক্টোবর প্রতিবেদন জমা দেয়ার শেষদিনে সবাই একমত হয়ে যে রিপোর্ট প্রদান করেছে জেলা ছাত্রলীগের কাছে তাতে বলেছে-‘ ফাহিম কাদেরের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগের তদন্তে প্রাপ্ত স্বাক্ষ্য প্রমাণ ও ঘটনার পারিপাশ্বিতার আলোকে সার্বিক বিবেচনায় রাঙামাটি জেলা ছাত্রলীগ কর্তৃক গঠিত তদন্ত কমিটি সকল সদস্যবৃন্দের ঐকমত্যের ভিত্তিতে ফাহিম কাদের,উপ অর্থ বিষয়ক সম্পাদক,রাঙামাটি জেলা ছাত্রলীগ এর বর্তমান পদ স্থগিত করার জন্য সুপারিশ করা হইল।’

এই বিষয়ে তদন্ত কমিটির সদস্য ও জেলা ছাত্রলীগের সহসভাপতি মিজান চৌধুরী অভি বলেন, আমরা তদন্ত শেষে যা পেয়েছি তার ভিত্তিতে সবাই সর্বসম্মতিক্রমে সুপারিশ জেলা কমিটির কাছে দিয়েছি। সেই মোতাবেক তারা হয়ত পদক্ষেপ নিবেন।’

MicroWeb Technology Ltd

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button