আলোকিত পাহাড়ব্রেকিংরাঙামাটিলিড

‘নিজের জন্মস্থানের মতো মনে রাখব রাঙামাটিকে’

ফেসবুক স্ট্যাটাসে জানালেন ছাদেক আহমেদ

১৮ জুন,বৃহস্পতিবার বিকালেই বদলীজনিত কারণে রাঙামাটি ছেড়েছেন রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ছাদেক আহমেদ। বিসিএস-২১ ব্যাচের চৌকষ ও মেধাবী এ কর্মকর্তা এর আগে রাঙামাটি জেলা প্রশাসনে নেজারত ডেপুটি কালেক্টর,জেলা পরিষদের নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছিলেন। সেই সাথে পার্বত্য চট্টগ্রামের ভূমি ব্যবস্থাপনার কাজে নিয়োজিত গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠান বাজার ফান্ডের দায়িত্বও পালন করেছেন। দুই মেয়াদে বেশ কিছু বছর পার্বত্য রাঙামাটিতে দায়িত্ব পালন করা এই কর্মকর্তা সৃজনশীলতা ও সততার কারণে বেশ সুখ্যাতিও অর্জন করেছিলেন। রাজনৈতিক প্রতিষ্ঠান হিসেবে সবসময়ই বিতর্কের কেন্দ্রে থাকা পার্বত্য রাঙামাটি জেলা পরিষদের লাগাম টেনে এর ভাবমূর্তি রক্ষায়ও ছিলো তার বিশেষ অবদান। বৃহস্পতিবার রাঙামাটি ছেড়ে যাওয়ার পর শুক্রবার সকাল ১১ টার দিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে দেয়া এক স্ট্যাটাসে রাঙামাটির প্রতি নিজের ভালোবাসা ও ভালোলাগার কথা জানিয়েছেন এই কর্মকর্তা। নীচে তার ফেসবুক স্ট্যাটাসটি হুবহু তুলে ধরা হলো-

‘কাল বিকেলে রাংগামাটি ছেড়ে ঢাকায় চলে আসলাম। নতুন কর্মস্থল জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিভাগ (ব্লু ইকোনমি সেল), বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়। রাংগামাটিতে কয়েকটি ক্যাপাসিটিতে অনেক দিন কাজ করার সুযোগ হয়েছে। রাংগামাটি আমার দ্বিতীয় জন্মস্থানের মতো। আমি বিমুগ্ধ নয়নে বুভুক্ষু পথিকের মতো উপভোগ করেছি রাংগামাটির রুপ-রস-সৌন্দর্য। আমি বারংবার রাংগামাটির নির্মল প্রকৃতির বুকে মুখ রেখে শোকে নিয়েছি এর সোঁদা গন্ধ। রাংগামাটির মাটি ও মানুষ সারল্য ও অফুরান প্রাণ শক্তিতে ভরপুর। আমার মানসপটে চির জাগরুক থাকবে রুপের রাণী খ্যাত রাংগামাটির মাটি ও মানুষের অজস্র স্মৃতি। ক্ষমা করো প্রিয় রাংগামাটি যদি আমার কারণে তোমার কোন অংগহানি হয়। মনে রাখব নিজের জন্মস্থানের মতো করে তোমাকেও। ভালো থাকবেন প্রিয় রাংগামাটিবাসী। রাংগামাটিকে কভু বিদায় দেয়া যাবেনা। তবু বলতে হয় বিদায় রাংগামাটি, বিদায়।’

MicroWeb Technology Ltd

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Back to top button