ব্রেকিংরাঙামাটিলিড

‘নারীরা ঘরে-বাহিরে কোথায়ও নিরাপদ নয়’

‘নারীরা ঘরে-বাহিরে কোথায়ও নিরাপদ নয়। সমাজের বিভিন্ন ক্ষেত্রে নারীদের অংশগ্রহণ থাকলেও, নিপীড়ত হতে হচ্ছে নারীদেরই। আজ রাষ্ট্রীয়-প্রশাসনিক দায়িত্বসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব পালন করছে নারীরাই। তবুও বাসে, পথে-ঘাটে প্রতিনিয়ত তাদের যৌন হয়রানির শিকার হতে হচ্ছে।’- রোববার বিকালে রাঙামাটি জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের সামনে নারী নির্যাতনের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক প্রতিবাদ দিবসে আয়োজিত মানববন্ধনে এসব কথা বলেন বক্তারা।

‘নারীর স্বাধীন চলাফেরায় চাই নিরাপত্তা’ এই স্লোগানে ‘নারীর প্রতি সহিংসতা প্রতিরোধ আন্দোলন, রাঙামাটি’ ব্যানারে আয়োজিত মানববন্ধন কর্মসূচিতে হিমাওয়ান্তির নির্বাহী পরিচালক ও নারী নেত্রী টুকু তালুকদারের সভাপতিত্বে এতে বক্তব্য দেন- জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সাবেক সদস্য নিরূপা দেওয়ান, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ রাঙামাটি জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক শামিম আরা বেগম, নারী হেডম্যান-কার্বারি নেটওয়ার্কের সাধারণ সম্পাদক সান্তনা চাকমা প্রমুখ।

এ সময় বক্তারা বলেন, ‘নারী স্বাধীন সত্ত্বা হিসেবে স-ইচ্ছায় যেকোনো সময়, যেকোনো জায়গায় যেকোনো পরিস্থিতিতে অবাধে চলাফেরা করতে পারবে। নারীর এই স্বাধীন চলাফেরায় নিরাপত্তা নিশ্চিত করার দায়িত্ব রাষ্ট্রের। সমাজে নারীর স্বাধীনভাবে চলাফেরার সহায়ক পরিবেশ সৃষ্টি করতে হবে। আমরা রাষ্ট্রের কাছে নারীদের স্বাধীনভাবে চলাফেরা করার অধিকার নিশ্চিত করার দাবি জানাচ্ছি। ’

তারা আরও বলেন, ‘আজ নারীরা প্রমাণ করেছে তাঁদের মেধা, দক্ষতা ও যোগ্যতা; এরপরও নারী পাচ্ছেনা স্বাধীন জীবন। বার বার আঘাত আসছে জীবনের ওপর, শরীরের ওপর। এই আঘাত ও আঘাতের হুমকি সংকুচিত করে দিচ্ছে নারী জারগণকে। তারা নিজ-নিজ পেশা ও কাজের প্রয়োজনে বাইরে যাতায়াতের ক্ষেত্রে পরিবহনে নানাভাবে যৌন নিপীড়ন, ধর্ষণের শিকার হচ্ছে। এতে করে নারীদের এখনও ঘর থেকে বের হতেই ভয় নিয়েই বের হতে হয়। বিভিন্ন সময়ে ধর্ষণ-হত্যার ঘটনার পর নতুন করে ঝুঁকি ও হুমকির মুখে পড়তে হচ্ছে তাদের।’

মানববন্ধনে নারীরা বিভিন্ন ধরণের প্ল্যাকার্ড হাতে নিয়ে প্রতিবাদ জানায়। এসব প্ল্যাকাডে লেখা রয়েছে- ‘পথে-ঘাটে বাসে-ট্রেনে, নারীর স্থান সবখানে; রাতের বেড়া ভাঙব, স্বাধীনভাবে চলব; কাজে কর্মে দিনেরাতে পথ চলবো নির্ভয়ে’। মানববন্ধন কর্মসূচিতে সংহতি জানায়- হিমাওয়ান্তি, নারীপক্ষ, নারী হেডম্যান-কার্বারি নেটওয়ার্ক, প্রথম আলো বন্ধুসভা, মারমা স্টুডেন্ট ফোরাম, রক্তদাতা সংগঠন উন্মেষ।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Back to top button