নীড় পাতা / ব্রেকিং / নাগালের বাইরে রাঙামাটির পেঁয়াজ !
parbatyachattagram

নাগালের বাইরে রাঙামাটির পেঁয়াজ !

সারাদেশের ন্যায় রাঙামাটিতেও পেঁয়াজের বাজার অস্থিতিশীল। ধাপে ধাপে দাম বৃদ্ধি পেয়ে পেঁয়াজ এখন ২২০-২৩০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এদিকে দাম কমে যাওয়ার আশঙ্কায় ব্যবসায়ীরাও পাইকারি বাজার থেকে পেঁয়াজ কম সংগ্রহ করছে, এতে বাজারে পেঁয়াজ সঙ্কট দেখা দিয়েছে।

পেঁয়াজ ক্রেতা আল মাহামুদ বলেন, ‘অধিকাংশ দোকানে পেঁয়াজ পাওয়া যাচ্ছে না। যদিও বা কোন দোকানে পাওয়া যায় দাম ২২০-২৩০ টাকা করে নিচ্ছে। কিছু অসাধু ব্যবসায়ীর কারনে পেঁয়াজের দাম দুইশ ছাড়িয়েছে। সরকার দ্রুত এই বিষয়ে পদক্ষেপ নেওয়া উচিত।

সবিনয় চাকমা বলেন, রাঙামাটিতে পেঁয়াজ বাজারে এখনো অস্থিতিশীলতা বিরাজ করছে। মধ্যবিত্ত পরিবারের জন্য খুবই কঠিন সময় যাচ্ছে। দাম বাড়তে বাড়তে স্থানীয় বাজারে এখন কেজি দুইশ টাকার ওপর মিশরীয় পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে।

বনরূপা দাশ ব্রার্দাসের স্বত্ত্বাধিকারী মানিক দাশ শুক্রবার বিকেলে বলেন, চট্টগ্রামের পাইকারি বাজার খাতুনগঞ্জ থেকে তারা ১৭০-১৮০ টাকায় পেঁয়াজ ক্রয় করছে, যা রাঙামাটিতে ১৯০-২০০টাকায় বিক্রি করতে হচ্ছে। পেঁয়াজের দাম যেকোনও সময় কমে যেতে পারে এমন আশঙ্কায় ব্যবসায়ীরা খুব বেশি পেঁয়াজ পাইকারি বাজার থেকে ক্রয় করছে না। এতে বাজারে পেঁয়াজের সঙ্কট দেখা দিয়েছে। পাইকারি বাজারে যতক্ষণ দাম কমবে না, স্থানীয় বাজারে দাম কমার কোনও সম্ভাবনা নেই বলে ব্যবসায়ীরা জানায়।

বনরুপা ব্যবসায়ী কল্যান সমিতি, সাধারণ সম্পাদক তাপস দাশ বলেন, স্থানীয় প্রশাসনের সাথে আমরাও ব্যবসায়ীদের সাথে নিয়মিত যোগাযোগ করছি কিভাবে সহনশীল রাখা যায় পেঁয়াজের বাজার। তাই দ্রুত সরকারের পদক্ষেপ ও বাজার মনিটরিং এর মাধ্যমে পেঁয়াজের বাজার নিয়ন্ত্রণের দাবী এই নেতার।

রাঙামাটির জেলা প্রশাসক একেএম মামুনুর রশিদ জানান, ‘ব্যবসায়ীরা পেঁয়াজ মজুদ রাখছে কিনা সেই ব্যাপারে আমরা মনিটরিং করছি। স্থানীয় ব্যবসায়ীরা চট্টগ্রামের পাইকারি বাজার খাতুনগঞ্জ কিনে ব্যবসা করে থাকে।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

চুরির মামলা করে নিজেই ফেঁসে গেলেন বাদী !

রাঙামাটিতে মিথ্যা চুরির মামলায় বাদীর কারাদ- দিয়েছেন আদালত। জেলার কাউখালী থানার আর্দশগ্রাম নিবাসী আবুল কাসেমের …

Leave a Reply