রাঙামাটি

নতুনের হাত ধরে শুভসংঘের শুভযাত্রা

নিজস্ব প্রতিবেদক

একঝাঁক মেধাবী তরুণের উদ্যোগে প্রায় চার বছর পরিচালিত হয়েছে রাঙামাটি জেলা শুভসংঘ। পড়াশোনার পাশাপাশি ভালো কাজের বাসনায় কিছু তরুণ শিক্ষার্থীকে একত্র করে শুভসংঘের যাত্রা শুরু করেছিলেন প্রথম কমিটির আহবায়ক অসীম দাশ গুপ্ত। আহ্বায়ক অসীম দাশগুপ্ত নানা কর্মসূচি সফলতার সঙ্গে পালন করেন। পরে দুই মেয়াদে সভাপতি নির্বাচিত হয়ে পরিচয় দেন দক্ষ সংগঠকের। প্রথম জাতীয় সম্মেলনেও সেরা ১১ সংগঠকের একজন মনোনীত হন তিনি। তাঁদের পেছনে থেকে অভিজ্ঞ চালকের ভূমিকা রাখেন শুভসংঘের নিবেদিত প্রাণ কালের কণ্ঠ’র জেলা প্রতিনিধি ফজলে এলাহী। একঝাঁক তরুণ সদস্যের সম্মিলিত চেষ্টায় সফলভাবে সম্পন্ন করেছেন অনেক সামাজিক-সাংস্কৃতিক কর্মকান্ড।
প্রায় চার বছর পেরিয়ে কর্মদীপ্ত সংগঠনে এ বছর যোগ দিয়েছেন আরো অনেক নবীন শিক্ষার্থী। সম্প্রতি বর্তমান কমিটির সভাপতি চাকরীজনিত কারণে জেলার বাইরে অবস্থান করায়, তাকে বিদায় সংবর্ধনা জানাতে এবং কমিটি পূর্ণগঠন করতে একটি সভার আয়োজন করে জেলা শুভসংঘ। ২২ তারিখ শুক্রবার জেলা শুভসংঘের অস্থায়ী কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত এই সভায় শুভসংঘকে এগিয়ে নিতে নানা উদ্যোগ গ্রহণ করেন শুভসংঘ সদস্যরা।
সভায় জেলা প্রতিনিধি ফজলে এলাহী তার বক্তব্যে বলেন, “মহামারী করোনার কারণে দীর্ঘদিন শহরে শুভসংঘের সাংস্কৃতিক-সৃজনশীল কর্মকান্ডের অবাধ চর্চায় ভাটা পড়লে আশা রাখছি নতুন কমিটির সদস্যরা ফের সৃজনশীল কর্মকান্ডগুলোকে এগিয়ে নিয়ে যাবে।”
সভা শেষে বর্তমান কমিটির ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক মং চিউ মারমাকে সভাপতি করে আগামী এক বছরের জন্য নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়। নতুন কমিটিতে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন প্রিয়ম আইচ এবং সাংগঠনিক সম্পাদক হয়েছেন আমেনা আক্তার। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন সহ-সভাপতি মো. ইকবাল হোসেন, যুগ্ম সম্পাদক মো: আশিকুর রহমান, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক সৈকত দাশ গুপ্ত, কোষাধ্যক্ষ রিন্টি চাকমা, সাহিত্য ও সাংস্কৃতিক সম্পাদক পন্টি সেন, নারী বিষয়ক সম্পাদক ফারজানা আক্তার, তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক সিপা আক্তার, কমিটিতে কার্যকরী সদস্য হিসেবে শারমিন আক্তারসহ আছেন আরো অনেকে। এছাড়া কমিটির প্রধান উপদেষ্টা কালের কণ্ঠ’র জেলা প্রতিনিধি ফজলে এলাহী ও অস্থায়ী উপদেষ্টা হিসেবে রাখা হয়েছে বিগত কমিটির সভাপতি অসীম দাশ গুপ্তকে।
কমিটি গঠন শেষে বিদায়ী সভাপতি অসীম দাশ গুপ্ত-কে সম্মাননা স্মারক তুলে দেন বর্তমান কমিটির সদস্যরা। এসময় তিনি অতীতের কাজের স্মৃতিচারণ করে বলেন, “শুভসংঘ রাঙামাটি জেলায় একটি ইউনিক সংগঠন ছিলো। জেলাজুড়ে ধারাবাহিকভাবে অনেক ব্যতিক্রমী কাজ করে গিয়েছে। তাই নতুন কমিটির কাছে প্রত্যাশা থাকবে আরও বেশি।”

 

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Back to top button