খাগড়াছড়ি

ধর্মীয় আচারে মিলনপুর বিহারে চীবর দানোৎসব সম্পন্ন

মহালছড়ি প্রতিনিধি ॥
খাগড়াছড়ির মহালছড়ি উপজেলার মিলনপুর বন বিহারে বুদ্ধের প্রধান উপাসিকা মিগারমাতা বিশাখার প্রবর্তিত নিয়মে কঠিন চীবর দানোৎসব সম্পন্ন হয়েছে। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টা থেকে বেইনবুনন (কোমর তাঁত) শুরু হয়। বুনন শেষে শুক্রবার মূল অনুষ্ঠানে আগত ভিক্ষুসংঘকে এ চীবর দান করা হয়। সকালের পর্বে সংঘ প্রধান হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মিলনপুর বন বিহারের বিহারাধ্যক্ষ ভদন্ত শ্রদ্ধাতিষ্য মহাস্থবির। এছাড়াও বিভিন্ন বিহার থেকে আগত শতাধিক ভিক্ষু উপস্থিত ছিলেন। এ সময় দায়ক দায়িকারা পঞ্চশীল গ্রহণ ও উপস্থিত ভিক্ষুসংঘ ধর্মীয় দেশনা প্রদান করেন।

এতে প্রধান উপাসক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহালছড়ি উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান বিমল কান্তি চাকমা। অনুষ্ঠানের দ্বিতীয় পর্বে ভিক্ষুসংঘকে বুননকৃত চিবরসহ বুদ্ধ মূর্তি দান, সংঘদান, অষ্ট পরিষ্কার দান, আকাশ বাতি দান, হাজার বাতি দানসহ নানাবিধ দান করা হয়। এ সময় সকল জীবের হিতার্থে উপাসক উপাসিকাগণের সমবেত প্রার্থনা ও ধর্মীয় দেশনা শ্রবণ করা হয়।

উল্লেখ্য, বুদ্ধের প্রধান উপাসিকা মিগারমাতা বিশাখা প্রবর্তিত নিয়মে ২৪ ঘন্টার মধ্যে তুলা থেকে চরকায় সুতা কেটে, সুতা রং করে আগুনে শুকিয়ে সেই সুতায় কোমর তাঁতে কাপড় বুনে চিবর তৈরি করে বৌদ্ধ ভিক্ষুদের দান করা হয়। তাই এ অনুষ্ঠানকে বৌদ্ধরা কঠিন চীবর দান হিসেবে আখ্যায়িত করা হয়।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

two × 4 =

Back to top button