ব্রেকিংরাঙামাটি

দ্রব্যমূল্য না বাড়ানোর অনুরোধ জেলা প্রশাসকের

কোনও ব্যবসায়ী যেন অহেতুকভাবে জরিমানা কিংবা হয়রানির শিকার না হয় সে ব্যাপারে প্রশাসন সর্তক থাকবে বলে জানিয়েছেন রাঙামাটির জেলা প্রশাসক এ কে এম মামুনুর রশিদ। তিনি বলেছেন, দ্রব্য মূল্যের স্থিতিশীলতার কথা বলে মোবাইল কোর্ট দিয়ে ব্যবসায়ীদের হয়রানি করা কোনও ভাবেই কাম্য নয়। ব্যবসায়ীরা সর্তক থাকলে মোবাইল কোর্টের প্রয়োজন থাকেনা। রমজান মাসে অন্যান্য সময়ের চেয়ে দ্রব্য মূল্যের চাহিদা বেড়ে যায়। সেখানে ব্যবসায়ীরা দ্রব্য মূল্যের দাম বাড়িয়ে দেয়, সেটা যেন না হয় আমাদের সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে।

বুধবার বিকেলে নিউ রাঙামাটি রিজার্ভ বাজার ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতি আয়োজিত রমজানের পবিত্রতা রক্ষা ও উর্ধ্বগতি রোধে মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, ইফতার সামগ্রিতে যাতে কোনও প্রকার বেজাল না থাকে তা দেখতে হবে। এছাড়া এবার রাস্তায় ওপর খোলামেলা ভাবে রফতার বিক্রি করা যাবে না। প্রয়োজনে ঢেকে রাখতে হবে। এসব খোলামেলা রফতারি খেয়ে রোজার দিনে অনেকেই অসুস্থ হয়ে পড়েন। অন্যান্য ধর্মাবলম্বীরা যারা আছেন রোজার সময় দিনের বেলা যেন অন্যের দৃষ্ঠির ক্ষতি না হয়, সেভাবে আপনাদের ব্যবসা করেতে হবে, সর্তক থাকতে হবে।

নিউ রাঙামাটি রিজার্ভ বাজার ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সভাপতি হাজী আনোয়ার মিয়া বানুর সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য রাখেন রাঙামাটির চেম্বার অব কর্মাস এন্ড্র ইন্ড্রাট্রিজ’র সভাপতি বেলায়েত হোসেন ভূঁইয়া, এলাকার মুরুব্বি হারুন মাতব্বর, নিউ রাঙামাটি রিজার্ভ বাজার ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক হাজী আব্দুল জব্বার । এতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন নিউ রাঙামাটি রিজার্ভ বাজার ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক ও পৌর কাউন্সিলর হেলাল উদ্দিন।

এসময় বক্তারা বলেন, নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম রোজার মাসে পূর্বের ন্যায় সহনীয় দাম রাখবেন। যাতে ক্রেতাদের মধ্যে কোন ধরনের প্রশ্নের জন্ম না হয়। নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যের দাম যদি কেউ বাড়ায় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। দয়া করে কেউ অনৈতিক কাজে জড়াবেন না।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button