বান্দরবানব্রেকিং

দুই ভাইকে খুনের ১২ আসামীকে জেলহাজতে প্রেরণ

বান্দরবানের রুমায়

বান্দরবানের রুমায় দুই ভাইকে পিটিয়ে হত্যা মামলায় ১২ জন আসামিকে আদালতের নির্দেশে জেলে পাঠিয়েছে পুলিশ। শনিবার দুপুরে সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মুজাহিদুর রহমান আদালতে আসামিদের হাজির করা আদালত তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

আসামিরা হলেন-মংবাচিং মারমার ছেলে শৈইসিং থোয়াই মারমা (২৩), উচিমং মারমার ছেলে শৈনুমং মারমা (২০), মৃত: মংবু মারমার ছেলে মংনু মারমা (৪১), মংনাই মারমার ছেলে কানুচিং মারমা (২৯), পুচিং থোয়াই মারমার ছেলে উচি মং মারমা (৫০), ক্যথই মারমার ছেলে থুসেই মারমা (৩৫), মৃত: সাগ্য অং মারমার ছেলে মংবাচিং মারমা (৫৫), অং সুইথোয়াই মারমার ছেলে ফিঞোচিং মারমা (২৩), থোয়াইংসা মারমার ছেলে বাসিং উ মারমা (২৮), মংহাই মারমার ছেলে উক্যহ্লা প্রু মারমা (৩৫), মংবাচিং মারমার মেয়ে ইউনুংচিং মারমা (১৯) ও থোয়াইংসা মারমার মেয়ে মেলিপ্রæ মারমা (১৮)।

সত্যতা নিশ্চিত করো বান্দরবান কোর্ট পুলিশ পরিদর্শক মো: মনিরুল ইসলাম বলেন, ১২জন আসামিকে রুমা থানা পুলিশ কোর্টে প্রেরণ করে। এদের মধ্যে ৮জন আসামি ফৌ: কা: বিধি ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করে। দুজন আসামি স্বীকারোক্তিমূলক কোন জবানবন্দি দেয়নি। এছাড়া দুইজন মেয়ে থাকায় তাদের থানা থেকে প্রেয়ার না দেয়ায় তাদের জবানবন্দি নেয়া হয়নি। তবে ১২জনের সবাইকেই আদালত জেল হাজতে প্রেরণ করার নির্দেশ দেয়।

এর আগে ঘটনার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে পুলিশ ১২ জন আসামিকে গ্রেফতার করে। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে রুমা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কাসেম চৌধুরী জানান, হত্যা মামলা দায়েরের ২৪ ঘন্টার মধ্যে ১২ জন আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা অপরাধ স্বীকার করেছে। অতিরিক্ত পুলিশ সুপারের নেতৃত্বে উধ্বর্তন একটি টিম তাদের গ্রেফতার করেছে।

প্রসঙ্গত, গত মঙ্গলবার চট্টগ্রাম র‌্যাবের দায়ের করা মাদক মামলার আসামি দুই ভাই হ্লাচিং পাড়ায় গিয়ে স্থানীয়ভাবে তৈরি বন্দুক ও ধারালো অস্ত্র নিয়ে পাড়াবাসীকে ভয়ভীতি দেখান। ক্ষিপ্ত হয়ে পাড়াবাসী দুজনকে আটক করে গণপিটুনি দিলে তাদের মৃত্যু হয়।

MicroWeb Technology Ltd

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button