খাগড়াছড়িব্রেকিং

দীঘিনালায় এক যুবককে গুলি করে হত্যা

গড়াছড়ির দীঘিনালা উপজেলায় মঞ্জুর আলম (৩৫) নামে এক যুবককে গুলি করে হত্যা করা হয়েছে। মঙ্গলবার (আগস্ট ৭) রাত ৯টার দিকে উপজেলা সদরের পোমাংপাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহত যুবক একই এলাকার মৃত মোস্তাফিজুর রহমানের ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, রাতে মঞ্জুর বন্ধুদের সঙ্গে পোমাংপাড়া স্কুল মাঠে বসে তাস খেলছিলেন। এ সময় একদল অস্ত্রধারী তাকে খুব কাছ থেকে গুলি করে পালিয়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। তবে এই হত্যাকাণ্ডে কারা জড়িত তা এখনও জানা যায়নি।

এলাকায় গুঞ্জন রয়েছে মঞ্জুর জনসংহতি সমিতি এমএন লারমা গ্রুপের সোর্স হিসেবে কাজ করতেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (এমএন লারমা গ্রুপপ) সহ তথ্য ও প্রচার সম্পাদক প্রশান্ত চাকমা জানান, ‘সে (মঞ্জুর) আমাদের সঙ্গে চলাফেরা করতেন। কিন্তু দলের সঙ্গে জড়িত ছিলেন না। তিনি এ হত্যাকাণ্ডের জন্য প্রসীত খিসার ইউপিডিএফকে দায়ী করেছেন। তবে এই বিষয়ে ইউপিডিএফ’র কারো বক্তব্য নেওয়া সম্ভব হয়নি।

দুই সন্তানের জনক মঞ্জুর মাছ চাষ ও কৃষিকাজ করতেন। একইসঙ্গে তিনি পোমাংপাড়ায় স্ত্রী-সন্তানদের নিয়ে স্থায়ীভাবে বসবাস করছিলেন।

দীঘিনালা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি ) মো. আব্দুস সামাদ জানান,‘এই হত্যাকান্ডে কারা জড়িত তা এখনো জানা যায়নি। নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে থানায় রয়েছে। সকালে ময়না তদন্তের জন্য খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালে পাঠানো হবে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button