ব্রেকিংরাঙামাটিলিড

‘দল ত্যাগি ও পরীক্ষিতদের মূল্যায়ন করবে’- বিশ্বাস মজিব’র

আসন্ন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে নৌকা প্রতীকে রাঙামাটি সদর উপজেলায় বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের মনোনয়ন চাইছেন যুবলীগের কেন্দ্রীয় নেতা মজিবুর রহমান দীপু। ইতোমধ্যেই দলীয় মনোনয়ন পেতে আনুষ্ঠানিকভাবে দলীয় মনোনয়ন জমা দিয়েছেন তিনি।

দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী মজিবুর রহমান দীপু বলেন, আমি ইতোমধ্যেই দলীয় প্রার্থীতা পেতে জেলা আওয়ামীলীগের কাছে আমার আবেদন জমা দিয়েছি। তারা নিশ্চয়ই আমার ত্যাগ,অবদান মূল্যায়ন করবেন এবং আমাকেই মনোনয়ন দিবেন বলে আমি আশাবাদী।

মজিব বলেন, ‘ছোটবেলা থেকেই আমি বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের রাজনীতির সাথে জড়িত। ১৯৯৩ সাল থেকে জেলা যুবলীগের রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত হয়ে এখন যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সহসম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করছি। এই দীর্ঘ সময়ে আমার বিরুদ্ধে রাজনৈতিক কারণে অন্তত ৩০ টি মামলা হয়েছে বিএনপি-জামাত জোট সরকারের শাসনামলে এবং আমাকে অন্তত: সাতবার গ্রেফতার করে নির্যাতন করা হয়েছে। আমার বিশ্বাস আমাদের প্রিয় নেত্রী,জননেত্রী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবার যে ঘোষণা দিয়েছেন, উপজেলা নির্বাচনে দলের ত্যাগি ও পরীক্ষিত নেতাকর্মীদের মূল্যায়ন করা হবে,তারই ধারাবাহিকতায় এবার আমাকে সদর উপজেলায় চেয়ারম্যান প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দিবে আওয়ামীলীগ।

মজিব জানিয়েছেন, আমার রক্তে শিরা উপশিয়ায় আওয়ামীলীগ। বঙ্গবন্ধুর আদর্শ বাস্তবায়নে পুরোটা জীবন নিয়োজিত থেকেছি। দলের জন্য গ্রেফতার হয়েছি,জেল খেটেছি। হামলা-মামলায় বারবার নির্যাতিত হয়েছি। আমার সাথে আরেকজন যিনি এবার দলীয় মনোনয়ন চাইছেন,তিনি আমার ¯েœহের ছোটভাই,একসময় ছাত্রলীগ করতেন। কিন্তু ২০০১-২০০৬ সালে বিএনপি-জামাতের দু:শাসনকালে এবং এরপর দেশে জরুরী অবস্থার সময় আমাদের প্রিয় নেত্রীসহ আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীদের উপর যখন নির্যাতন নিপিড়ন চলছিলো তখন তাকে মাঠে দেখিনি।’ আমার বিশ্বাস,দল তার ত্যাগি ও পরীক্ষিত কর্মীদেরই মূল্যায়ন করবে।’

প্রসঙ্গত, রাঙামাটি জেলা যুবলীগের সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক,জেলা যুবলীগের প্রচার সম্পাদক,কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করা মজিব রাঙামাটি আওয়ামীলীগ পরিবারের একজন পরীক্ষিত নেতা এবং তিনি রাঙামাটির বিভিন্ন সামাজিক সাংষ্কৃতিক সংগঠনের সাথেও জড়িত। দলের কাছে জমা দেয়া আবেদনে মজিব জানিয়েছেন,ঠিকাদারি পেশার পাশাপাশি তিনি বর্তমানে বাংলাদেশ পরিবার পরিকল্পনা সমিতির রাঙামাটি জেলা ইউনিটের সভাপতি,প্রত্যাশা ক্লাবের সভাপতি ছাড়াও রাঙামাটি ডায়াবেটিকস সমিতি,রাঙামাটি কাঠ ব্যবসায়ি সমবায় সমিতি,বাংলাদেশ রেডক্রিসেন্ট সোসাইটি,রাঙামাটি জেলা খেলোয়াড় সমিতি,বাঙালী ঠিকাদার সমিতিসহ বিভিন্ন সংগঠনের সাথে সক্রিয়ভাবে জড়িত আছেন।

MicroWeb Technology Ltd

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Back to top button