বান্দরবান

তুমব্রু বাজারে ৫ দোকান পুড়ে ছাই

নাইক্ষ্যংছড়ি প্রতিনিধি
বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ির উপজেলার ঘুমধুম তুমব্রু বাজারের ৫টি দোকান আগুনে পুড়ে সম্পূর্ণ ছাই হয়ে গেছে।সোমবার ভোর ৪টা ২০ মিনিটের দিকে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়।

তুমব্রু বাজারের দোকানদার ফখর উদ্দিন জানান, ছৈয়দ নূর মার্কেটে আশরাফ আলীর বয়লার মুরগীর দোকান থেকে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটলে ব্যবসায়ী ও স্থানীয়রা আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার আগেই সম্পূর্ণ পুড়ে ছাই হয়ে যায়। পার্শ্ববর্তী উপজেলা উখিয়ার ফায়ার সার্ভিস খবর পেয়ে দ্রুত তুমব্রু বাজারে এসে স্থানীয়দের সহযোগিতায় ভোর ৫টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হয়। ততক্ষণে আশরাফ আলীর মুরগীর দোকান, নুর আয়েশার খাদ্য দ্রব্যের দোকান, নবী হোছাইনের চায়ের দোকান, নুর বশরের পানের দোকান ও খাইরুল বশরের মুদির দোকান পুড়ে যায়। এতে অন্তত ৮ লাখ টাকার ক্ষতি হয় বলে ব্যবসায়ীরা জানায়।

উখিয়ায় দায়িত্বরত ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা এমদাদুল হক জানান, খবর পেয়ে দ্রুত তুমব্রু বাজারে পৌঁছে জনতার সহযোগিতায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে সক্ষম হই। এতে ৫টি দোকান পুড়ে গেলেও পুরো বাজার আগুণের লেলিহান শিখা থেকে রক্ষা করতে পেরেছি।

এদিকে অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে দ্রুত ঘটনাস্থলে আসেন ঘুমধুম পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মো. দেলোয়ার হোসেন, ঘুমধুম ইউনিয়ন যুবলীগ সভাপতি ছৈয়দুল বশরসহ স্থানীয় ব্যবসায়ীরা। তাৎক্ষনিক আগুণে পুড়ে যাওয়া দোকানদারদের ১০ হাজার টাকা করে ৫ জনকে ৫০ হাজার বিতরণ ও আগুন নিভাতে অংশ নেওয়া ২ শতাধিক স্বেচ্ছাসেবকদের সকালের খাবারের ব্যবস্থা করেন ঘুমধুম ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি ছৈয়দুল বশর।

ঘটনাস্থলে যাওয়া ঘুমধুম পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ মো. দেলোয়ার হোসেন জানান, আগুনে ৫টি দোকান পুড়ে গেছে। এতে কয়েক লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে। পুলিশ, দমকল কর্মী ও স্থানীয়দের সহযোগিতায় বড় ধরণের অগ্নিকাণ্ডের লেলিহান শিখা থেকে তুমব্রু বাজারের অর্ধশতাধিক দোকান রক্ষা পেয়েছে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button