রাঙামাটি

তিনটিলা বনবিহারে কঠিন চীবর দানোৎসব সম্পন্ন

আরমান খান, লংগদু ॥
“আজ থেকে ঊনপঞ্চাশ বছর আগে ১৯৭৩ সালে আমার প্রথম তিনটিলা বনবিহারে আসা। তখনই এখানে পরম শ্রদ্ধেয় বনভান্তের দর্শন লাভ করি। সেদিন বনভান্তে আমাকে কিছু কথা বলেছিলেন। আজ বনভান্তে নাই কিন্তু তার সেদিনের সব কথাই বাস্তবে প্রতিফলিত হয়েছে। ১৯৯১ সালে প্রথম সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহনের সময় আবারো বনভান্তের কাছে যাই এবং আর্শিবাদ কামনা করি। সেদিন তিনি বলেছিলেন, অনেকেই নির্বাচনে প্রার্থী হয়েছে তারা হয়তো তোমাকে আক্রমণ করে কথা বলবে। তুমি কখনো কারো বিষয়ে বদনাম করবে না। তুমি তোমার লক্ষ্যে স্থির থাকবে। তুমি মৈত্রী ভাবনা নিয়ে থাকবে। সেই থেকে আজ পর্যন্ত মৈত্রী ভাবনাকেই প্রাধান্য দিয়েছি। মৈত্রী ভাবনাই মানুষের মুক্তির পথ।”

লংগদুর তিনটিলা বন বিহারে ২৪ তম দানোত্তম কঠিন চীবর দান অনুষ্ঠানে শুক্রবার সকালে প্রধান অতিথির বক্তব্যে একথা বলেন সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার। পরম শ্রদ্ধেয় বনভান্তের স্মৃতিধন্য ঐতিহ্যবাহী তিনটিলা বনবিহারে চীবর দান অনুষ্ঠান শুক্রবার সম্পন্ন হয়েছে।

অনুষ্ঠানের প্রথম অধিবেশনে সুমন চাকমা ও মান্টি চাকমার সঞ্চালনায় আরো বক্তব্য রাখেন লংগদু উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনি রায়, বিহার পরিচালনা কমিটির প্রধান উপদেষ্টা অবসরপ্রাপ্ত কাস্টমস কর্মকর্তা কল্যাণ মিত্র চাকমা, বিহার পরিচালনা কমিটির সভাপতি রকি চাকমা, সাধারণ সম্পাদক চন্দ্র সুরথ চাকমা।

এ সময় অতিথি হিসেবে আরো উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান বৃষকেতু চাকমা, জেলা পরিষদের সদস্য আসমা বেগম, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আনোয়ারা বেগম, লংগদু থানার অফিসার ইনচার্জ আরিফুল আমিন।

চীবর দান অনুষ্ঠান উপলক্ষে অষ্টপরিষ্কার দান, বুদ্ধমূর্তি দান, সংঘ দান, চুরাশি হাজার বাত্তি দান, কল্পতরু দানসহ নানাবিধ দান অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় আমন্ত্রিত ভান্তে রাজবন বিহারের আবাসিক প্রধান শ্রদ্ধেয় প্রজ্ঞালংকার মহাস্থবিরকে বিহারের পক্ষে চীবর দান করেন সুমন বিকাশ চাকমা। এছাড়াও অনুষ্ঠানে প্রথম বারের মতো ঐতিহ্যবাহী তিনটিলা বন বিহারের স্মৃতি রোমন্থন করে স্মরণিকা প্রকাশ করা হয়।

অনুষ্ঠানে দেশনা প্রদান করেন, রাজবন বিহারের অধ্যক্ষ পূজ্য বনভান্তের শিষ্য প্রজ্ঞালংকার মহাস্থবির, বেনুবন অরণ্য কুঠিরের অধ্যক্ষ শ্রদ্ধেয় পন্থক মহাস্থবির, রাজবন বিহারের শ্রদ্ধেয় পূর্ণজ্যোতি মহাস্থবির, শ্রদ্ধেয় সুমন মহাস্থবির, প্রশান্তি অরণ্য কুটিরের অধ্যক্ষ শ্রদ্ধেয় শুভপ্রিয় স্থবির, শ্রদ্ধেয় ধর্মালোক স্থবির।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four × 5 =

Back to top button