করোনাভাইরাস আপডেটব্রেকিংরাঙামাটিলিড

জীবন বদলে দেয়া ভাইরাস

নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরার উপলব্ধি

করোনা ভাইরাসের কারণে বদলে গেছে মানুষের জীবন,প্রাত্যহিকতা,জীবনাচার। ব্যতিক্রম নন পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের চেয়ারম্যান ও বিশ্বপর্যটক হিসেবে পৃথিবীর নানান জনপদ ঘুরে দেখা একজন নাগরিক অভিযাত্রিক, নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরাও। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে নিজের টাইমলাইনে করোনাদিনের গাঁথা নিয়ে  একটা স্ট্যাটাস পোস্ট করেছেন তিনি ২৩ মে। ‘জীবন বদলে দেয়া ভাইরাস’ শীর্ষক স্ট্যাটাসটি আমাদের পাঠকদের জন্য হুবহু তুলে ধরা হলো। স্ট্যাটাসের সাথে নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরার যে ছবিটি আমরা ব্যবহার করেছি, সেই ছবিটি এঁকেছেন রাঙামাটির গুণী শিল্পী মো: ইব্রাহীম।

‘চলমান দীর্ঘ স্বেচ্ছাগৃহরুদ্ধ জীবনে নাগরিকদের জীবনধারা বদলে যাচ্ছে অনেকটা অজান্তেই । যে ভবনে ঢাকা শহরে গত ১৭ বছর ধরে আমরা ২০টি পরিবার সম্প্রীতি নিয়ে বসবাস করছি লকডাউনের প্রথম দিন থেকেই পূর্ব সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আমরা ছেড়ে দিয়েছি সব বাবুর্চি, ঠিকা ঝি, ছুটি দেয়া হয়েছে সব গাড়ি চালককে, বন্ধ করে দেয়া হয়েছে সংবাদপত্র, নিষিদ্ধ করা হয়েছে বাইরের অতিথি। বেশিরভাগ শপিং হচ্ছে অনলাইনে। ডেলিভারি নিচের মুল ফটকে। বহিরাগত কারোর গৃহ প্রবেশ নিষেধ। চুল কাটা হচ্ছে স্বগৃহে, নিজ উদ্যোগে। আগে ৭টি জাতীয় দৈনিক পড়তাম, সেই সাথে Economist, National Geographic, Reader’s Digest. এখন যা কিছু পড়ি সব অনলাইনে। অনেকে ইতোমধ্যে সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেছেন লকডাউন উঠে গেলেও এ জীবনধারা (lifestyle) অপরিবর্তিত রাখবেন।

শিল্পী ইব্রাহীমের আঁকা নব বিক্রম কিশোর ত্রিপুরার স্কেচ

ভাবছি কিছু পেশার মানুষের কি হবে? নর সুন্দর, গৃহপরিচারিকা, গাড়ি চালক, পাচক এদের অনেকেই মনে হয় কর্মহীন হয়ে যাবে। আগে প্রতি সপ্তাহে কাপড় -চোপড় ড্রাই ওয়াশে দিতাম। এখন বাসায় মেশিন ওয়াশ করে নিজেই আইরন করি। মানুষ ক্রমশ স্বাবলম্বী হয়ে উঠছে, বাধ্য হয়ে শিখতে হচ্ছে নানা কাজ, যেমন- রান্না-বান্না, ঘর পরিস্কার করা ইত্যাদি। অনেকটা বিদেশের মত, যেখানে সব কাজ নিজেকেই করতে হয়। দীর্ঘদিন সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার কারণে হয়তো কিছু মানুষ এমনিতেই অসামাজিক হয়ে যাবে, কে জানে!

জানিনা এর সমাপ্তি কোথায়। বিশ্ব স্বাস্হ্য সংস্থা সতর্ক করে দিয়েছে করোনাভাইরাস হয়তো কখনোই সম্পূর্ণ নির্মুল হবেনা। তাহলে কেমন হবে আগামী দিনের পৃথিবী? কেমন হবে মানুষের লাইফ স্টাইল?’

MicroWeb Technology Ltd

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button