নীড় পাতা / পাহাড়ের সংবাদ / খাগড়াছড়ি / জনসংহতি সমিতি (এমএনলারমা)’র প্রতি ঐক্যের আহ্বান ইউপিডিএফ’র
parbatyachattagram

জনসংহতি সমিতি (এমএনলারমা)’র প্রতি ঐক্যের আহ্বান ইউপিডিএফ’র

‘ঐক্যবদ্ধ সংগ্রামই মুক্তির একমাত্র পথ’ এই শ্লোগানে সংঘাত বন্ধ ও জুম্ম জাতির ঐক্য গড়তে খাগড়াছড়ি জেলায় মিছিল ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়েছে। রোববার খাগড়াছড়ি জেলার মাটিরাঙ্গা, মানিকছড়ি, লক্ষ্মীছড়ি ও মহালছড়িতে এসব সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশ থেকে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির (জেএসএস- এমএনলারমা) প্রতি সংঘাত পরিহার করে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানানো হয়।

ইউপিডিএফের সহযোগী সংগঠন গণতান্ত্রিক যুব ফোরামের কেন্দ্রিয় কমিটির সহ-সাধারণ সম্পাদক বরুণ চাকমা স্বাক্ষরিত গণমাধ্যমে প্রেরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, রোববার গুইমারা-মাটিরাঙ্গায় এলাকাবাসীর ব্যানারে অনুষ্ঠিত মিছিল পরবর্তী সমাবেশে হাফছড়ি ইউনিয়নের মেম্বার কালা মারমার সঞ্চালনায় ও রসিক কুমার চাকমার সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন চান মোহন ত্রিপুরা, নাক্রাই পাড়া কার্বারি অংগ্যজয় মারমা ও চাইহ্লা প্রু কার্বারি।

সমাবেশের সঞ্চালক কালা মারমা বলেন, আমরা আর জুম্ম বনাম জুম্ম সংঘাত চাই না, ঐক্য চাই। আমরা যদি নিজেদের মধ্যে সংঘাতে লিপ্ত থাকি তাহলে অচিরেই ধ্বংস হয়ে যাবো। তিনি ঐক্যবদ্ধভাবে আন্দোলন গড়ে তোলার জন্য পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি (এমএনলারমা) সহ সকল দলের প্রতি আহ্বান জানান।

চান মোহন ত্রিপুরা বলেন, আমরা ভাইয়ে ভাইয়ে সংঘাত দেখতে চাই না, ঐক্যবদ্ধভাবে শক্তিশালী আন্দোলন দেখতে চাই। তিনি বলেন, যারা সংঘাত চায় তারা জাতির শত্রু, তারা দেশের শত্রু। তাই যারা সংঘাত চায়, আমরা তাদের ঘৃনা করব, তাদের প্রতিহত করব। চাইহ্লা প্রু কার্বারি বলেন, পাহাড়িদের ঐক্যবদ্ধ সংগ্রামই মুক্তির একমাত্র পথ। সকলে ঐক্যবদ্ধ হলেই আমাদের মুক্তি আসবে, নয়তো নয়।

সভাপতির বক্তব্যে রসিক কুমার চাকমা বলেন, আমরা এই সমাবেশ থেকে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি (জেএসএস- এমএনলারমা) সহ সকল দলগুলোর প্রতি আহ্বান জানাই- আপনারা সকলে মিলেমিশে, কাঁধে কাঁধ, হাতে হাত রেখে আন্দোলন গড়ে তুলুন, তাহলেই আন্দোলন শক্তিশালী হবে। ভূমি রক্ষা হবে, মা-বোনদের ওপর অত্যাচার বন্ধ হবে। সর্বোপরি জাতি রক্ষা হবে। আর তখনই আপনারা হবেন জাতি রক্ষক। প্রকৃত দেশপ্রেমিক। জাতি আপনাদের চিরকাল স্মরণে রাখবে। তাই আপনারা নিজেদের সকল দ্বন্দ্ব, সংঘাত ভুলে ঐক্যবদ্ধ আন্দোলন জোরদার করুন।

এদিকে একই আহ্বান জানিয়ে জেলার মানিকছড়ি, লক্ষ্মীছড়ি ও মহালছড়িতে সমাবেশ ও র‌্যালি অনুষ্ঠিত হয়। (বিজ্ঞপ্তি)

Micro Web Technology

আরো দেখুন

ঘুমধুম সীমান্তে ২ বিজিবি সদস্য গুলিবিদ্ধ

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম মিয়ানমার সীমান্তে বিজিবি সঙ্গে চোরাকারবারী চক্রের গোলাগুলির ঘটনা ঘটেছে। এসময় ২ …

Leave a Reply