বান্দরবানব্রেকিং

চারদিন ধরে নিখোঁজ ‍দুই বোন !

বান্দরবানের লামা উপজেলায় মাছ ধরতে গিয়ে চারদিন ধরে এক পরিবারের দুই কন্যা শিশু নিখোঁজ রয়েছে। উপজেলার গজালিয়া ইউনিয়নের দুর্গম পাহাড়ি বাতেন টিলা এলাকার একটি বিলে মাছ ধরতে গিয়ে তারা নিখোঁজ হয়। নিখোঁজ দুই শিশুর নাম ইয়াছমিন বেগম (১১) ও মুক্তা বেগম (৯)। এরা উভয়েই বাতেন টিলা এলাকার মনির আহমদের মেয়ে ও ক্রংতং পাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৪র্থ ও ৫ম শ্রেণির ছাত্রী।

এদিকে দুই শিশুকে উদ্ধার করতে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স সদস্যদেরকে নির্দেশ দেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার নূর-এ-জান্নাত রুমি। সোমবার বিকাল পর্যন্ত নিখোঁজ দুই শিশুর কোনো খোঁজ মিলেনি বলে জানান স্বজনেরা।

নিখোঁজ দুই শিশুর পিতা মনির আহমদ বলেন, গত বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে বমু খাল পার হয়ে বাড়ির পাশের একটি বিলে ইয়াছমিন ও মুক্তা মাছ ধরতে যায়। দীর্ঘক্ষণ বাড়ি না ফেরার কারণে আমরা বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি শুরু করি। কোথাও খোঁজ না পেয়ে শেষে স্থানীয় প্রশাসনকে জানাই। ধারণা করা হচ্ছে, বাড়ি ফেরার সময় বমুখাল পাড়ি দিতে গিয়ে ইয়াছমিন ও ম্ক্তুা ¯্রােতের টানে ভেসে গেছে। সোমবার বিকাল পর্যন্ত কোনো খোঁজ পাইনি।

লামা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের স্টেশন কর্মকর্তা সাফায়েত হোসেন বলেন, উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নির্দেশে আমরা নিখোঁজ দুই শিশুকে উদ্ধারে অভিযানে চালাই। দুপুর থেকে একদল কর্মী ঘটনাস্থল ও আশপাশের এক কিলোমিটার এলাকা পর্যন্ত তল্লাশি চালিয়েও শিশু দুইটির কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি। তাই চট্টগ্রামে অভিজ্ঞ ডুবুরি টীমকে খবর দেয়া হয়েছে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে লামা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অপ্পেলা রাজু নাহা বলেন, পুলিশের একটি টিম নিখোঁজ শিশু দুইটির উদ্ধার কাজে ফায়ার সার্ভিসকে সহায়তা করছে। পাশাপাশি বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button