রাঙামাটি

চলে গেলেন সাঈদ তারিকুল হাসান

রাঙামাটির সাবেক পুলিশ সুপার ছিলেন তিনি

প্রায় দুই বছরেরও বেশি সময়কাল ধরে পার্বত্য জেলা রাঙামাটিতে পুলিশ সুপার হিসেবে দায়িত্ব পালন করে চলে গিয়েছিলেন তিনি,তাও বছর দুয়েক প্রায়। কিন্তু নিয়তির কি নির্মম পরিহাস। পৃথিবী থেকে চিরবিদায় নেয়ার মাত্র একদিন আগে অফিসিয়াল কাজে এসেছিলেন পূর্বের কর্মক্ষেত্র রাঙামাটিতে,রাঙামাটি থেকে গেছেন বান্দরবানে। সেখানেই হঠাৎ শারীরিক অসুস্থতা বোধ করলে তাকে হেলিকপ্টারে করে নিয়ে যাওয়া হয় চট্টগ্রামের সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসকরা মৃত ঘোষণা করেন। মৃত্যুকালে এআইজি (অপারেশন) হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন তিনি।
বৃহস্পতিবার বিকালে হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে তার মৃত্যু হয় বলে পুলিশ সদরদপ্তরের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।
পুলিশ সুপার পদমর্যাদার কর্মকর্তা সাঈদ তারিকুলের বয়স হয়েছিল ৪৫ বছর। তার মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং পুলিশের মহাপরিদর্শক বেনজীর আহমেদ শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন।
সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সাঈদ বান্দরবানে সরকারি দায়িত্ব পালনকালে বিকালে হঠাৎ বুকে তীব্র ব্যথা অনুভব করেন। তাকে তাৎক্ষণিক হেলিকপ্টারে করে চট্টগ্রাম সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) স্থানান্তর করা হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
সাঈদ তারিকুলের জন্ম ১৯৭৫ সালের ২৭ নভেম্বর দিনাজপুর জেলার সদর থানার মুদিপাড়া গ্রামে। তার বাবার নাম আমিনুল ইসলাম এবং মা মোর্শেদা খাতুন।
তার মা, এক ভাই ও এক বোন এবং স্ত্রী আজুবা সুলতানা ও দুই মেয়ে রয়েছে।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ফার্মেসি বিভাগে স্নাতক (সম্মান) ও স্নাতকোত্তর ডিগ্রি নেন সাঈদ তারিকুল। ২০তম বিসিএস (পুলিশ) ব্যাচে সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) হিসেবে বাংলাদেশ পুলিশে যোগ দেন তিনি।
কর্মজীবনে সাঈদ তারিকুল রাঙ্গামাটি জেলার পুলিশ সুপার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। তিনি পুলিশ সদরদপ্তরের রিক্রুটমেন্ট অ্যান্ড ক্যারিয়ার প্ল্যানিং, ইউএন অ্যাফেয়ার্স, কমিউনিটি পুলিশিং এবং সর্বশেষ অপারেশন্স উইংয়ের এআইজি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।
পেশাগত কৃতিত্ব ও দক্ষতার স্বীকৃতি হিসেবে তিনি বিপিএম পদকে ভূষিত হন। চার বার আইজিপি ব্যাজ পেয়েছেন তিনি।
সাঈদের জানাজা শুক্রবার সকাল ১১টায় রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সের শহীদ এসআই শিরু মিয়া মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হবে বলে বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়।
এআইজি সাঈদ তারিকুল হাসানের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন। প্রধানমন্ত্রী বৃহস্পতিবার এক শোক বার্তায় প্রয়াতের আত্মার শান্তি কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানান।
আইজিপি বেনজীর আহমেদ এআইজি সাঈদ তারিকুল হাসানের অকাল মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন।
আইজিপি বলেন, “সাঈদ তারিকুল হাসান একজন দক্ষ, প্রতিভাবান ও সম্ভাবনাময় পুলিশ কর্মকর্তা ছিলেন। তার মৃত্যুতে বাংলাদেশ পুলিশ একজন যোগ্য ও আদর্শ কর্মকর্তাকে হারাল।”
আইজিপি তার আত্মার শান্তি কামনা এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

 

MicroWeb Technology Ltd

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button