ব্রেকিংরাঙামাটিলিড

গৃহবধূর মামলায় ছাত্রলীগ নেতাসহ দুই ভাই কারাগারে

নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে এক গৃহবধূর দায়ের করা মামলায় রাঙামাটির কোতোয়ালি থানা পুলিশের হাতে গ্রেপ্তারকৃত রাঙামাটি সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের নেতাসহ দুই ভাইকে আদালতের নির্দেশে কারাগারে পাঠানো হয়েছে। রবিবার রাত আটটার দিকে শহরের দুই নম্বর পাথর ঘাটা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করে কোতোয়ালি থানা পুলিশ।
আটকৃতরা হলেন, মো. সাইফুল ইসলাম ও মো. সাজ্জাদ ইসলাম, উভয়ের পিতাঃ মো. আবুল হাসেম। গ্রেপ্তারকৃত সাইফুল রাঙামাটি সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের বর্তমান কমিটির সহ-সভাপতি।
পুলিশ জানিয়েছে, মো. সাইফুল ইসলাম ও তার ছোট ভাই সাজ্জাদ ইসলাম ধারাবাহিক ভাবে সাইফুল ইসলামের স্ত্রীর উপর নির্যাতন চালিয়ে আসছিলো। একপর্যায়ে তাকে বালিশ চাপা দিয়ে মেরে ফেলতে চেয়েছিল, যা পাশ^বর্তী ভাড়াটিয়ারা দেখেছেন বলে জানিয়েছেন। সেটিতে ব্যর্থ হয়ে তারা বৃহস্পতিবার রাত আড়াইটার দিকে গ্যাস সিলিন্ডার অন করে দিয়ে ঘর থেকে বের হয়ে যায়। পরবর্তীতে সাইফুলের স্ত্রী গ্যাসের গন্ধ পেয়ে বাসা থেকে পালিয়ে তার ফুফুর কাছে আশ্রয় নেয়। পরে তাকে রাঙামাটি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়, সেখান থেকে রবিবার ২২ এপ্রিল সে থানায় এসে মামলা করে সে।
এছাড়াও সাইফুলের স্ত্রীর অনিচ্ছা সত্ত্বেও তার দুই মাসের সন্তানকে ওষুধ খাইয়ে নষ্ট করার করার অভিযোগ রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে।
রাঙামাটি কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) মীর জাহিদুল ইসলাম রনি, ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, আমরা অভিযুক্ত সাইফুলের স্ত্রীর নারীও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলায় সাইফুল ও ভাই সাজ্জ্বাতকে রবিবার রাতে গ্রেপ্তার করেছি এবং কোর্টে চালান করেছি।
কোতোয়ালি থানা পুলিশ জানান, নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইন ২০০০সংশোধনী ২০০৩ এর ১১ (ক)/ ১১(গ)৪(১)/১০/৩০ তৎ সহ ১৮৬০সালের প্যানেল কোর্ট এর ৩১২/৫০৬ দন্ড বিধিতে মামলায় তাদের দুই ভাইকে আটক করা হয়েছে। তাদের সোমবার কোর্টে চালান করা হয় । আদালতের নির্দেশে তাদের দুই ভাইকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে।
রাঙামাটি কলেজ ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক আহম্মেদ ইমতিয়াজ রিয়াদ রিয়াদ জানিয়েছেন, সাইফুল আমাদের গঠনতন্ত্রের বাইরে গিয়ে কলেজ ছাত্রলীগের কমিটিতে আসার পর বিয়ে করে ফেলে। সেটা আমরা জানতাম না। এছাড়াও শুধু বিয়েই নয়, কোন মহিলার উপর অমানবিক নির্যাতন আমরা কোন ভাবে মেনে নিব না। আমরা খুব শীঘ্রই বসে সংগঠনের গঠনতন্ত্র মোতাবেক তাকে দলীয় ভাবমুর্তি নষ্টসহ একজন মহিলার উপর নির্যাতনের কারণে বহিষ্কার করা হবে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button