পাহাড়ের রাজনীতি

ক্ষমতাসীন সরকার ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে: ইউপিডিএফ

হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর বর্বরোচিত হামলার প্রতিবাদ

ধর্মীয় সংখ্যালঘু হিন্দু সম্প্রদায়ের ওপর ন্যাক্কারজনক ও বর্বরোচিত হামলা, বাড়িঘরে অগ্নিসংযোগ, লুটপাট ও নারীর ওপর নির্যাতনের প্রতিবাদ জানিয়েছে পার্বত্য চট্টগ্রামে পূর্ণস্বায়ত্তশাসনের দাবিতে আন্দোলনরত আঞ্চলিক রাজনৈতিক দল ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ)।

মঙ্গলবার গণমাধ্যমে প্রেরিত এক যৌথ বিবৃতি ইউপিডিএফ সভাপতি প্রসিত খীসা ও রবি শংকর চাকমা ‘সংখ্যালঘু সম্প্রদায়, বিভিন্ন ভাষা-ভাষী জাতিসত্তা ও সাধারণ নাগরিকদের জানমাল রক্ষার্থে ক্ষমতাসীন সরকার সম্পূর্ণ ব্যর্থতার পরিচয় দিয়েছে’ বলে কঠোর সমালোচনা করেছেন।

বিবৃতিতে ইউপিডিএফ নেতৃবৃন্দ রংপুরের পীরগঞ্জে হামলার পরিপ্রেক্ষিতে দেয়া স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর বক্তব্যকে ‘দায়িত্বজ্ঞানহীন’ মন্তব্য করে বলেছেন, ‘পূজামণ্ডপ, মন্দির-বৌদ্ধ বিহারে হামলা নতুন কোন ঘটনা নয়। কুমিল্লা ঘটনার পরপরই সরকারের কঠোর ব্যবস্থা নেয়া উচিত ছিল। সেটা না করে ক্ষমতাসীন সরকার প্রকারান্তরে রংপুরের পীরগঞ্জ, নোয়াখালীর চৌমুহনীসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় হামলার সুযোগ সৃষ্টি করে দিয়েছে। যার দায় সরকার এড়াতে পারেনা।’

ইউপিডিএফের এই দুই শীর্ষনেতা বলেন, ‘সংখ্যালঘুবান্ধব বলে জাহিরকারী আওয়ামীলীগের এক যুগের অধিক শাসনামলে প্রতি বছরই কোথাও না কোথাও হামলা হচ্ছে। ২০১২ সালে রামু-কক্সবাজারসহ সারাদেশে বৌদ্ধ ও হিন্দুদের ওপর হামলার ঘটনাও লোকে ভুলে যায়নি। কোন ঘটনারই সুষ্ঠু তদন্ত বা বিচার কিছুই সরকার করেনি। উন্নয়নের ডুগডুগি বাজিয়ে ক্ষমতাসীন সরকার নিজেদের অপকর্ম আড়ালের অপচেষ্টা চালাচ্ছে।’ বিজ্ঞপ্তি

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Back to top button