রাঙামাটিলিড

ক্ষতিপূরণ দাবি ক্ষতিগ্রস্ত এক পরিবারের

নানিয়ারচরে নিজ জমির ওপর ইউনিয়ন পরিষদ ভবন নির্মাণ করা হয়েছে এমন অভিযোগ এনে তার ক্ষতিপূরণ দেওয়ার আকুতি জানিয়েছেন রওশন আরা বেগম নামের এক মহিলা।

অভিযোগকারী রওশন আরা জানান,‘ অসুস্থ স্বামী এবং নড়বড়ে আর্থিক অবস্থার সুযোগ কাজে লাগিয়ে ২০১৭ সালের দিকে নানিয়ারচর থানার ৬১নং মাইছড়ি মৌজাস্থ হোল্ডিং নং ৩১৩/৩৩৫ এর অন্দরে ০.০৫(পাচঁ শতক) নিজ জায়গার ওপর নির্মিত ঘর ভেঙে জোরপূর্বক ইউনিয়ন পরিষদ ভবন নিমার্ণকাজ আরম্ভ করে একটি মহল।

সেসময় স্থানীয় থানা ও তৎকালীন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ঘর ভাঙার দায়ে ৫০ হাজার টাকা এবং নারিকেল গাছের ক্ষতি পূরণ বাবদ ১টি গাভী দেওয়ার কথা থাকলেও তা না দিয়ে উল্টো মিথ্যা মামলায় তাকে হয়রানি করা হয়েছে যোগ করেন তিনি।

তিনি আরো অভিযোগ করেন, ইউনিয়ন পরিষদ স্থাপনা নির্মাণের সময় আমার উত্তর পাশের্^র চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে বাড়ির সীমনা পাকা ওয়াল ভেঙে ফেলে তারা।

রওশন আরা বলেন, আমি আমার জায়গার ক্ষতিপূরণ চাই। সেই সঙ্গে আমি আমার পরিবার নিয়ে নিজ বসত বাড়িতে শান্তিতে থাকতে চাই।

দৈনিক পার্বত্য চট্টগ্রাম টিম এ ঘটনার সত্যতা জানতে নানিয়ারচরের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: মাসউদ পারভেজ মজুমদারকে মুঠোফোনে কল দিলে তিনি এমন অভিযোগকে ভিত্তিহীন দাবি করে বলেন, ইউনিয়ন পরিষদ নির্মাণের জন্য সরকার থেকে ৩০ শতাংশ জায়গা বন্দোবস্ত দেওয়া হয়েছিল। সেই জায়গার ওপরই ইউনিয়ন পরিষদ নির্মাণ করা হয়েছে।

MicroWeb Technology Ltd

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button