ব্রেকিংরাঙামাটিলিড

ক্ষতিগ্রস্ত শিক্ষার্থীদের শিক্ষা উপকরণ দিলো মাউশি

গত ১৩ জুন পার্বত্য জেলা রাঙামাটিতে ভয়াবহ প্রাকৃতিক দুর্যোগ ও ভূমিধসে ক্ষতিগ্রস্ত শিক্ষার্থীদের পাশে সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর। ক্ষতিগ্রস্ত শিক্ষার্থীদের মধ্যে প্রথম পর্বে ৫ শত স্কুল ছাত্র-ছাত্রীদের মাঝে শিক্ষা উপকরণ এবং স্কুল পোষাক তৈরির জন্য জনপ্রতি ১০০০ টাকা হারে ৫ লক্ষ টাকা প্রদান করা হয়েছে। শিক্ষা উপকরণের মধ্যে রয়েছে খাতা, কলম, জ্যামিতি বক্স ।

শনিবার দুপুরে রাঙামাটি জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে দুর্গত শিক্ষার্থীদের মাঝে শিক্ষা উপরণ ও অর্থ সহায়তা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর চট্টগ্রাম অঞ্চলের পরিচালক প্রফেসর ড, গোলাম ফারুক। জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মানজারুল মান্নানের সভাপতিত্বে শিক্ষা উপকরণ বিতরণী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর চট্টগ্রাম অঞ্চলের উপ পরিচালক (কলেজ) ড. গাজী গোলাম মাওলা, সহকারী পরিচালক মোহাম্মদ মোশাররফ হোসেন, প্রবীণ সাংবাদিক সুনীল কান্তি দে।

রাঙামাটি প্রেসক্লাবের সভাপতি সাখাওয়াৎ হোসেন রুবেল, রাঙামাটি পাবলিক কলেজের অধ্যক্ষ তাছাদ্দিক হোসেন কবির, রাঙামাটি সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক উত্তম খীসা, সাংবাদিক মোঃ মোস্তফা কামাল এবং জেলা শিক্ষা অফিসার নির্মল কুমার চাকমা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।

শিক্ষা উপকরণ বিতরণী অনুষ্ঠানে জানানো হয় মাধ্যমিক পর্যায়ের যে সমস্ত শিক্ষার্থীর দুর্যোগে কারণে পাঠ্য বই বিনষ্ট হয়েছে সে সমস্ত বই শিক্ষা অধিপ্তরের পক্ষ থেকে তাদের দেয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যে রাঙামাটি জেলার ১ হাজার ৫ শত সেটের বই এর চাহিদা প্রেরণ করা হয়েছে।

বিভাগীয় পরিচালক জানান, ভূমিধসে রাঙামাটি জেলার মাধ্যমিক পরযায়ের যে সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অবকাঠামো ক্ষতি হয়েছে, সেসব ক্ষতি কাটিয়ে উঠে পুনরায় এই সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে লেখাপড়ার পরিবেশ নিশ্চিত করার জন্য শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। তিনি জানান, চট্টগ্রাম এবং সিলেট বিভাগের যে সমস্ত জেলায় প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে ক্ষতিগ্রস্ত শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়িয়েছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর। দুর্যোগের কারণে দুর্গত কোনও শিক্ষার্থীর লেখাপড়া যাতে বিনষ্ট না হয় সে ব্যাপারে শিক্ষা অধিদপ্তর সজাগ রয়েছে।

জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মানজারুল মান্নান রাঙামাটির ভযাবহ প্রাকৃতিক বিপর্যয়ে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মতো অন্যান্য প্রতিষ্ঠানকেও সহায়তার হাত সম্প্রসারিত করার আহ্বান জানিয়ে বলেন, রাঙামাটির ইতিহাসের স্মরণকালের এই ভয়াবহ প্রাকৃতিক বিপর্যয়ে যে ক্ষয় ক্ষতি তা কাটিয়ে উঠে ঘুরে দাঁড়ানোর জন্য সকলের সম্মিলিত সহযোগিতা প্রয়োজন। তিনি ক্ষতিগ্রস্ত শিক্ষার্থীদের জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকেও আর্থিক সহায়তা প্রদানের প্রতিশ্রুতি দেন।

পরে অতিথিবৃন্দ শিক্ষার্থীদের হাতে শিক্ষা উপকরণ এবং স্কুল পোষাক তৈরির জন্য নগদ অর্থ প্রদান করেন।

রাঙামাটি জেলার বিভিন্ন স্কুল ও কলেজের প্রধানগণ, উপজেলা শিক্ষা অফিসার, মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের কর্মকর্তা, সাংবাদিকসহ সুশীল সমাজের প্রতিনিধিগণ উপস্থিত ছিলেন। রাঙামাটি জেলা শিক্ষা অফিস এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

8 + eleven =

Back to top button