রাঙামাটি

কোভিড সংক্রমন মাত্রা ছাড়াচ্ছে কাপ্তাইয়ে

কেপিএম এবং মিশন এলাকায় সংক্রমণের হার বেশি

কাপ্তাই প্রতিনিধি

প্রায় প্রতিদিনই নিজেদের পুরনো রেকর্ড ভেঙ্গে সংক্রমন মাত্রা ছাড়াচ্ছে রাঙামাটির শিল্পশহর কাপ্তাইতে।  বৃহস্পতিবারও উপজেলায় একদিনে রেকর্ড সর্বোচ্চ আরো ১৯ জনের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে

উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের করোনার ফোকাল পারসন ডাঃ ওমর ফারুক রনি বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

বৃহস্পতিবার রাঙামাটি পিসিআর ল্যাবে কাপ্তাই হতে ৩২ টি নমুনা পাঠানো হয়েছে তৎমধ্যে ১৬ জনের রিপোর্ট পজিটিভ আসে। এছাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এন্টিজেন টেস্টের ৫ টি নমুনা পরীক্ষায় ৩ জন করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসে।

কাপ্তাইয়ে নতুন করোনা শনাক্ত হওয়া ১৯ জনের মধ্যে উপজেলার কেপিএম, চিৎমরম, মিশন, বড়ইছড়ি সহ বিভিন্ন এলাকার বাসিন্দা রয়েছে।

এদিকে করোনা সংক্রমনের হার বিবেচনায় দেখা যায়, উপজেলার ১ নং চন্দ্রঘোনা ইউনিয়ন এর মিশন এলাকা এবং কেপিএম এলাকায় করোনা সংক্রমনের হার সবচেয়ে বেশী। প্রতিদিন এই সব এলাকায় গড়ে ৫ থেকে ৭ জনের করোনা পজেটিভ আসছে বলে স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা যায়।

চন্দ্রঘোনা মিশন হাসপাতালের পরিচালক ডাঃ প্রবীর খিয়াং জানান, বর্তমানে মিশন এলাকায় সরকারি বেসরকারি এবং ব্যক্তি পর্যায়ে অনেক উন্নয়ন কাজ চলছে। ফলে বাহিরের লোকজন এই এলাকায় অবাধে চলাচল করছে। তারা কেউ স্বাস্থ্য বিধী মানছেন না। যার ফলে এই এলাকায় সংক্রমনের হার উধ্বর্মুখী।

তিনি আরোও জানান, প্রশাসনের সহায়তায় আমরা একটি কমিটির মাধ্যমে কিভাবে করোনা নিয়ন্ত্রণে আনা যায়, সেই ব্যাপারে বসবো। তিনি সকলকে আবারোও স্বাস্থ্য বিধী মেনে চলার অনুরোধ জানান।

১ নং চন্দ্রঘোনা ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ারুল ইসলাম চৌধুরী বেবী জানান, আমরা প্রশাসনকে সাথে নিয়ে প্রতিদিন করোনা সচেতনতায় প্রচার প্রচারনা করে আসছি। এরপরেও স্বাস্থ্য বিধী মানতে অনীহা কিছু লোকের। তিনি সকলকে সরকারি নির্দেশনা মেনে চলার অনুরোধ জানান। এদিকে এ নিয়ে কাপ্তাইয়ে মোট করোনা শনাক্ত ৩১১ জন।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button