ব্রেকিংরাঙামাটিলিড

কাল শুরু পাঁচদিনের বঙ্গবন্ধু জাতীয় অ্যাডভেঞ্চার উৎসব

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জম্মশত বার্ষিকী উপলক্ষে আগমী ১১-১৫ জানুয়ারি তিন পার্বত্য জেলায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় অ্যাডভেঞ্চার উৎসব পালিত হচ্ছে। পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের উদ্যোগে ও বাংলাদেশ অ্যাডভেঞ্চার ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় আয়োজিত এই উৎসবের বিভিন্ন বিষয় তুলে ধরতে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে আয়োজকরা। বৃহস্পতিবার সকালে শহরের পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের কর্ণফুলি সম্মেলন কক্ষে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান শাহীনুল ইসলাম বলেন, বাংলাদেশ পর্যটন শিল্পের উন্নয়ন ও অ্যাডভেঞ্চার কার্যক্রমে নতুন প্রজন্মকে উদ্বুদ্ধকরণের উদ্দেশে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের উদ্যোগে ও বাংলাদেশ অ্যাডভেঞ্চার ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় আগমী ১১-১৫ জানুয়ারি তিন পার্বত্য জেলায় বঙ্গবন্ধু জাতীয় অ্যাডভেঞ্চার উৎসব উদযাপিত হবে। এতে দেশি-বেদেশি অ্যাডভেঞ্চার ১০০ জনকে মনোনীত করা হয়েছে তার মধ্যে স্থানীয় ৩১জন, দেশের অন্যান্য এলাকার ৫৩জন এবং ১৬জন বিদেশি এই অ্যাডভেঞ্চারে অংশ গ্রহণ করবেন। এভারেস্ট বিজয়ী নিশাত মজুমদারকে বঙ্গবন্ধু অ্যাডভেঞ্চার সম্মাননা প্রদান করা হবে। তিনি আরো বলেন, অ্যাডভেঞ্চার ফেস্টিভলের মাধ্যমে দেশের অ্যাডভেঞ্চার পর্যটন শিল্পের সম্ভাবনা প্রসারিত ও বিকশিত করবে। পাশর্^বর্তী দেশগুলিতে বিগত দুই তিন দশক ধরে প্রতি বছর এধরনের অ্যাডভেঞ্চার ফেস্টিভল অনুষ্ঠান হলেও আমাদের দেশে জাতীয়ভাবে এটিই প্রথম উদ্যোগ।

তিনি আরো জানান, আগামী ১১ জানুয়ারি কাপ্তাইয়ে কর্ণফুলি সরকারি কলেজে সকাল ১০টায় উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শুরু হবে। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী আ.ক.ম. মোজাম্মেল হক প্রধান অতিথি হিসেবে থাকবেন বলে জানানো হয়। ১৫ জানুয়ারি বিকেল ৪টায় উৎসবের সমাপনী অনুষ্ঠান রাঙামাটিস্থ পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের প্রধান কার্যালয়ের মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হবে। এতে পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈ সিং উপস্থিত থাকবেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান শাহীনুল ইসলাম, সদস্য পরিকল্পনা প্রকাশ কান্তি চৌধুরী, সদস্য প্রশাসন আশীষ কুমার বড়ুয়া, বাংলাদেশ অ্যাডভেঞ্চার ক্লাবের সভাপতি মশিউর রহমান প্রমুখ।

বাংলাদেশ অ্যাডভেঞ্চার ক্লাবের সভাপতি মশিউর রহমান জানান, উৎসবে অন্যতম আকর্ষণ মাউন্টেইন বাইকিং, কায়াকিং, ক্যানিওনিং, কেভ ডিসকভারি, হাইকিং, ট্রেইল রান, রোপ কোর্স, টিম বিল্ডিং, টি ট্রেইল হাইকিং, সেইলিং বোটসহ বিভিন্ন অ্যাডভেঞ্চার ক্রীড়াবিদরা অংশ গ্রহণ করবেন।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Back to top button