নীড় পাতা / ব্রেকিং / ‘কারা সেই ভাশুর তা আমাদের কাছে পরিষ্কার হয়ে গেছে’
parbatyachattagram

আইজিপি জাভেদ পাটোয়ারি

‘কারা সেই ভাশুর তা আমাদের কাছে পরিষ্কার হয়ে গেছে’

দু’দিন ব্যাপী তিন পার্বত্য জেলার আইন শৃঙ্খলা বিষয়ে বিশেষ সভার শেষ দিনে রাঙামাটি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্টি ইনন্সিটিটিউট আয়োজিত সভায় বাংলাদেশ পুলিশ মহা পরিদর্শক ড.মোঃ জাবেদ পাটোয়ারী বলেন, প্রথম দিন আমরা প্রশাসন উচ্চ পর্যায়ের কর্মকর্তাদের কথা শুনেছি, আজ আমরা জনপ্রতিনিধি ও সুশীল সমাজের কথা শুনলাম। মূলত আমরা জানতে এসেছি, কেমন আছেন আপনারা, আর প্রান্তিক পর্যায়ে মানুষ কেমন আছে। আপনাদের উত্থাপিত সকল প্রস্তাবনা আমরা নোট করেছি, এগুলো নিয়ে আমরা ঢাকা থেকে যে উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধি দল এসেছি, তারা আবার রাষ্ট্রের নীতি নির্ধারকদের সাথে বসবো, সেখানে সব কিছু পর্যরোচনা করে প্রধানমন্ত্রীর সাথে বসে আমরা কর্মপরিকল্পনা ঠিক করবো।

তিনি আরও বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে আমাদের সেনা ও পুলিশ বাহিনী এখন রোল মড়েল, আপনাদের হতাশ হবার কোন কারণ নেই যে আমরা এই তিন পার্বত্য জেলার গুটি কয়েক দুষ্কৃতিকারীকে নিয়ন্ত্রন করতে পারবো না। আপনারা অনেকেই বলেছেন ভাশুরের নাম মুখে নিতে পারেন না। কারা সেই ভাশুর তা আমাদের কাছে পরিষ্কার হয়ে গেছে।’

আইজিপি আরও বলেন, আমরা বুঝতে পেরেছি এখানকার ৯৫ বা ৯৮ ভাগ মানুষ শান্তি চায়, উন্নয়ন চায়, মাত্র ২ বা ৩ ভাগ মানুষের করণে তা ভেস্তে যেতে পারেনা। অল্প কিছুদিনের মধ্যেই আপনার এসভার প্রতিফলন দেখতে পাবেন। আমরা বিশ্বাস করি এদের বিরুদ্ধ যখন আমরা কাজ শুরু করবো তখন আপনাদের পাশে পাব। আপনারা দেখেছে আমরা কিভাবে সন্ত্রাসবাদ, জঙ্গিবাদ দমন করেছি, মাদকের ব্যপাবে কিভাবে জিরো টলারেন্স নীতিতে আমাদের মাননীয় স্বারাষ্ট্রমন্ত্রী সারা দেশ চষে বেড়াচ্ছন। সুতরাং এই তিন পার্বত্য জেলার সমস্যা সমাধান করা আমাদের জন্য কঠিন কিছু না।

পর্যটন নিয়ে পুলিশ মহা পরিদর্শক বলেন, পর্যটনের অপার সম্ভবনা এই তিন জেলায় রয়েছে, কিন্তু কতিপয় দুষ্কৃতির কারনে এ সিল্পের বিকাশ ঘটছেনা, এখানে যদি সব স্বাভাবিক থাকতো তাহলে সারা দেশের মানুষ এক নজর দেখের জন্য এখানে ভীড় জমাতো, শুধু তাই নয়, বিদেশী পর্যাটকেন প্রচুন আগমন ঘটতো। ামার মতে পৃথিবীর সব চািকে সুন্দরতম জায়গা আমাদের এই রাঙামাটি, বান্দরবান ও খাগড়াছড়ি। আমরা আশা করি এ অঞ্চলে আবারও শান্তির সুবাতাস বইবে। কতিপয় দুষ্কৃতিকারীকে আমরা প্রতিহত করে ছাড়বই।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

সৌদি ফেরত কাউখালীর দুই নারীর মুখে নির্যাতনের কথা

রাঙামাটির কাউখালী উপজেলার মর্জিনা বেগম (৫০) (ছদ্মনাম)। তিন সন্তানের জননী। বাস করেন উপজেলা সদরের নিকটবর্তী …

Leave a Reply