রাঙামাটিলিড

কাউখালীতে টিকা প্রত্যাশিদের ভিড়: হিমশিম খাচ্ছে রেডক্রিসেন্ট কর্মীরা

জয়নাল আবেদীন, কাউখালী ॥
রাঙামাটি কাউখালী উপজেলা স্ব্যস্থ কমপ্লেক্সে টিকা নিতে লম্বা দুই লাইনে মানুষের ভিড় দেখা গেছে। তবে এখানেও স্বাস্থ্যবিধি মানছেনা কেউ। টিকা নিতে সকাল থেকে লম্বা লাইনে দাঁড়িয়ে আছেন নারী-পুরুষ। সকাল থেকেই ভিড়ের কারণে পরিস্থিতি সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছে রেড ক্রিসেন্ট ও স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মীরা। সকাল থেকে লাইনে দাঁড়িয়ে অনেক বয়স্ক ও বৃদ্ধ অসুস্থ হয়ে পড়েছেন বলে জানাগেছে। তবে এদিন টিকা নিতে আগ্রহীদের মধ্যে ছিলো না কোন স্বাস্থ্যবিধি।

ভ্যাকসিন প্রদান বুথে মানা হচ্ছে না স্বাস্থ্য বিধি। তবে রেডক্রিসেন্টের নিবন্ধন টেবিলের সামনে নিয়ম করা হয়েছে গেইট দিয়ে তিন জন করে টিকা দিতে ঢুকতে পারবে এতেও বাকবিতন্ডা শিকার হচ্ছেন রেডক্রিসেন্টের কর্মীরা। দেখা গেছে বুথের বাইরে একজনের শরীরের সাথে অন্যজনের শরীরে মেশানো। লাইনে দাঁড়ানো লোকদের গা ঘেঁষে হেঁটে যাচ্ছেন, কোভিড পরিক্ষা করতে আশা রোগীরা। তবে রেডক্রিসেন্ট ও স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মীরা বলছে, যারা আজকের জন্য ম্যাসেজ পেয়েছেন শুধুমাত্র তারা আসলে এই ভিড় হত না। যাদের টিকার ম্যাসেজ দেয়া হয়নি, তারা আসায় অতিরিক্ত ভিড় হয়েছে।

টিকা দিতে আগ্রহী মংসানো মার্মা বলেন, সকাল ৮টা থেকে লাইনে দাঁড়িয়ে আছি। প্রচন্ড গরমে ৪ ঘন্টায় অসুস্থ হয়ে পড়েছি। এখানে পানির ব্যবস্থাও নেই। এখনও আমি টিকা পায়নি।

কাউখালী য্বু রেড ক্রিসেন্টের দলনেতা মো রবিউল হোসেন জানান, য্বু রেড ক্রিসেন্টের মোট ৬৫জন কর্মী টিকা প্রদান কার্যক্রমের সাথে জড়িত রয়েছেন এবং প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে ৯ জন স্বেচ্ছাসেসবক এখানে কাজ করছে। কিন্তু টিকা নিতে আসা লোকের চাপ এত বেশি যে আমরা তাদের সামলাতে হিমশিম খাচ্ছি। টিকা গ্রহিতারা বসে অপেক্ষা করবে এমন কোন জায়গা ছিল না। আমরা বসার জন্য হাসপাতালের বারান্দা পরিষ্কার করে দিয়েছি। লোক এত বেশি যে সবাইকে বসতেও দেয়া যাচ্ছে না। তারপরও আমরা চেষ্টা করছি সকলকে স্বাভাবিকভাবে টিকা দিয়ে বাড়ি ফেরাতে।

কাউখালী স্ব্যস্থ ও পরিবার পরিকল্পনা বিষয়ক কর্মকর্তা ডাঃ সুইমেপ্রু রোয়াজা জানান, প্রতিদিন ২০০ মানুষকে টিকা দেয়ার সক্ষমতা আছে। আমরা ২০০’শ মানুষকেই ম্যাসেজ দিয়েছি। কিন্তু ম্যাসেজ না পেয়েও কিছু মানুষ টিকা কার্ড নিয়ে হাসপাতালে এসেছে। যার ফলে এই ভিড়ের সৃষ্টি হয়েছে। দেখা গেছে প্রতিদিন প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ মিলিয়ে ৪০০জনের অধিক মানুষকে টিকা দিতে হয়।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Back to top button