করোনাভাইরাস আপডেটরাঙামাটি

করোনা সংক্রমণরোধে লড়ছে কাপ্তাই স্বাস্থ্য বিভাগ

দেশের এই ক্রান্তিলগ্নে মহামারি করোনা যুদ্ধে প্রথম সারির যোদ্ধা হিসেবে কাজ করে যাচ্ছে ডাক্তার, নার্স সহ স্বাস্থ্যকর্মীরা। নিজেদের জীবনের মায়া ত্যাগ করে করোনা ভয়কে জয় করে তারাই দেশের মানুষের সেবায় প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছেন। আবার অনেক করোনা যোদ্ধা ডাক্তার, স্বাস্থ্যকর্মী করোনা যুদ্ধ মোকাবেলায় নিজেদের জীবনটায় উৎসর্গ করে মৃত্যুকে বরণ করে নিয়েছেন। স

র্বশেষ তথ্যমতে দেশের মধ্যে একটি মাত্রই জেলা যেটি করোনামুক্ত আছে আর সেটি হলো রাঙামাটি। রাঙামাটি জেলার প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের লীলাভূমি কাপ্তাই উপজেলাও এখনো করোনা মুক্ত রয়েছে। কিন্তু কাপ্তাই উপজেলা করোনা মুক্ত হলেও করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলায় নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন কাপ্তাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের চিকিৎসক এবং স্বাস্থ্যকর্মীরা। তারা প্রতিনিয়ত হাসপাতালে অবস্থান করে কাপ্তাইবাসীকে দিয়ে যাচ্ছেন নিরবিচ্ছিন্ন চিকিৎসাসেবা।

কাপ্তাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সরজেমিন গিয়ে কথা হয় কাপ্তাই উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মাসুদ আহমেদ চৌধুরীর সাথে। তিনি জানান, কাপ্তাই উপজেলা এখনো করোনা মুক্ত হলেও করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় সদা প্রস্তুত কাপ্তাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত ডাক্তার, নার্স সহ সব স্বাস্থ্যকর্মীরা। তিনি জানান, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স বর্তমানে কর্মরত ১জন আবাসিক মেডিকেল অফিসার, ৭ জন মেডিকেল অফিসার,৩ জন উপ সহকারী মেডিকেল অফিসার, ৩৫ জন স্বাস্থ্য সহকারী, ৩ জন ল্যাব টেকনিসিয়ান, ১১ জন কমিউনিটি হেলথ কেয়ার প্রোভাইডার, এবং ১৪ জন নার্স সহ সকলে প্রতিনিয়ত কাপ্তাইবাসীর নিরবিচ্ছিন্ন সেবায় কাজ করে যাচ্ছেন।

তিনি আরো জানান, কাপ্তাই উপজেলায় এই পর্যন্ত করোনা ভাইরাস সন্দেহ হওয়ায় ৮ জনের নমুনা চট্টগ্রামের ফৌজদারহাটের বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিকাল এন্ড ইনফেকসিয়াস ডিজিসেস (বিআইটিআইডি) হাসপাতালে পাঠানো হয় যার মধ্যে ৬ জনের নমুনা রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে এবং ২ জনের রিপোর্ট অপেক্ষমাণ রয়েছে। এছাড়া কাপ্তাই উপজেলায় বর্তমানে হোম কোয়ারেন্টাইন রয়েছে ২৯ জন এবং হোম কোয়ারেন্টাইন মুক্ত হয়ে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে গেছেন আরো ৫১ জন।

এই কর্মকর্তা বলেন, করোনা ভাইরাস মোকাবেলায় পূর্ব প্রস্তুতি হিসেবে কাপ্তাই উপজেলা নবনির্মিত ৫০ শয্যা হাসপাতাল ভবনটিকে ফ্লু কর্ণার হিসেবে প্রস্তুত করে রাখা হয়েছে। একজন মেডিকেল কর্মকর্তা এটির দায়িত্বে রাখা হয়েছে। স্বাস্থ্য কর্মকর্তা জানান,, কাপ্তাইবাসীকে করোনা ভাইরাস মুক্ত রাখা এবং এই ভাইরাস মোকাবেলার পূর্বপ্রস্তুতি গ্রহন করতে সর্বোচ্চ ভুমিকা পালন করে যাচ্ছেন কাপ্তাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স। কাপ্তাইবাসী যদি করোনা সংক্রমন মোকাবেলায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা কতৃক গৃহীত নির্দেশনা গুলো যথাযথ ভাবে মেনে চলে এবং করোনা মোকাবেলায় সরকারি নির্দেশনাগুলি যথাযথভাবে মেনে চলে তাহলে কাপ্তাই উপজেলা করোনামুক্ত থাকবে বলে তিনি আশ্বস্ত করেন।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

three × 1 =

Back to top button