করোনাভাইরাস আপডেটব্রেকিংরাঙামাটিলিড

করোনায় মারা গেলেন মায়াধন চাকমা

জেলায় কোভিড-১৯ এ মৃত্যু বেড়ে দাঁড়ালো ১০ জনে

করোনায় মারা গেলেন রাঙামাটি জেলা দুর্নীতি প্রতিরোধ কমিটি (দুপ্রক)’র সাবেক সভাপতি ও বালুখালি ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান মায়াধন চাকমা। শুক্রবার রাতে চট্টগ্রামের একটি বেসরকারি হাসপাতালে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। শনিবার দুপুরে রাজবাড়ী মহাশশ্মানে স্বাস্থ্যবিধি মেনে তার শেষকৃত্য সম্পন্ন করা হয়েছে।
রাঙামাটি সিভিল সার্জন কার্যালয়ের করোনা সেলের ফোকাল পার্সন ডা: মোস্তফা কামাল জানিয়েছেন মায়াধন চাকমা করোনা আক্রান্ত হয়ে চট্টগ্রামের একটি বেসরকারি হাসপাতালে মারা গেছেন। এই নিয়ে রাঙামাটিতে করোনায় ১০জনের মৃত্যু হয়েছে। তাকে স্বাস্থ্যবিধি মেনেই সৎকার করা হয়েছে।
বালুখালি ৬নং ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান বিজয় গিরি চাকমা জানিয়েছেন, মায়াধন চাকমাকে গত ২০জুলাই অসুস্থ অবস্থায় চট্টগ্রামে নিয়ে যাওয়া হয়। প্রথমে তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল সেন্টারে ভর্তি করানো হয় পরে তাকে অন্য একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। সেখানে শুক্রবার রাতে তিনি শেষ নিঃশ^াস ত্যাগ করেন।
বিজয় গিরি চাকমা বলেন, ব্যক্তি জীবনে তিনি একজন সৎ ও পরোপকারী ছিলেন। তিনি জনপ্রতিনিধি থাকাকালে ও তার পরবর্তী সময়ে সাধ্যমত মানুষে উপকার করে গেছেন।
মায়াধন চাকমা বালুখালি ৬নং ইউনিয়ন পরিষদের ৯নং ওয়ার্ডে বিভিজা কিজিং গ্রামে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ১৯৮৭-২০০২ সাল পর্যন্ত টানা তিনবার ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন। তার মধ্যে আশির দশকে রাঙামাটি সদর উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান শান্তিময় দেওয়ান মারা গেলে মায়াধন চাকমা সদর উপজেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব গ্রহণ করেন এবং পরবর্তী উপজেলা নির্বাচন পর্যন্ত সে দায়িত্ব পালন করেন।
তিনি ২০০৭সালে রাঙামাটি জেলা দুনীতি প্রতিরোধ কমিটির প্রতিষ্ঠাকাল থেকে দীর্ঘ ১৪ বছর কমিটির সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছিলেন। এছাড়াও তিনি বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, সামাজিক সংগঠন ও ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানের সাথে জড়িত ছিলেন।

MicroWeb Technology Ltd

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button