উন্নয়ন বোর্ড প্রথম বিভাগ ফুটবল লীগ

উড়ছে ছদক

প্রথম রাউন্ডের ‘এ’ গ্রুপের শীর্ষে অবস্থান করা ছদক মাঠে নামলেই যেন মনে হয় তারাই জয়ী হবে। জয়ী হওয়াটাই যেন অধিকার। তেমনটি করেই খেলছে ছদক। ছদকের জয়রথ থামাতে পারছে না কোনও দল।

মঙ্গলবার বিকাল তিনটায় ছদক ক্লাবের বিপক্ষে মাঠে নামে ‘বি’ গ্রুপের রানার্স আপ আবাহনী ক্রীড়া চক্র। মাঠে ‘ফেবারিট’ হয়েই নামে বড় বাজেটের দল ছদক ক্লাব। অপ্রতিরোধ্য ছদক প্রথম থেকেই ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ নিয়েই খেলতে থাকে। যার ফল পেতে খুব বেশি সময় অপেক্ষা করতে হয়নি। প্রথমার্ধের ১০ মিনিটের সময় ছদক উড়িয়ে আনা বিদেশি ১০ জার্সি গায়ে জড়ানো খেলোয়াড় ইসমাইল বাঙ্গুরা গোল করে ছদককে এগিয়ে দেয়। গোল শোধে কয়েকবার আক্রমণে যাবার চেষ্টা করে আবাহনী। তবে তাতেও কোনও সফলতা পায়নি দলটি। এক গোলের লিড নিয়ে বিরতিতে যায় ছদক ক্লাব।

বিরতি থেকে ফিরে আক্রমণের মাত্র আরও বাড়িয়ে দেয় ছদক। আবাহনীকে ব্যস্ত রাখে রক্ষণভাগ সামলাতে। দ্বিতীয়ার্ধের ১০ মিনিটের সময় ১১ নাম্বার জার্সি পরিহিত মুন্না আসাম গোল করে ব্যবধান বাড়ায়। দুই গোলে এগিয়ে থেকে আক্রমণাত্মাক খেলতে থাকে ছদক। ১৪ মিনিটের সময় শফিক গোল করে বড় ব্যবধানের জয়ের পথে চলতে থাকে। ৩-০ গোলের বড় ব্যবধানে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ছদক। এ জয়ের ফলে ছদক যেমন অপরাজিত আছে তেমনই এখনও পর্যন্ত একটি গোলও হজম করতে হয়নি বনরূপার বড় বাজেটের দলটিকে।

ম্যাচের সেরা খেলোয়াড় সমর জয়কে মোহামেডান ক্লাবের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মান্নানের সৌজন্যে এক হাজার টাকা নগদ পুরষ্কার প্রদান করেন আবু বশার চৌধুরী। সুপার লীগের প্রতিটি খেলার সেরা খেলোয়াড়কে এক হাজার টাকা নগদ সৌজন্য।

পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের অর্থায়নে পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ড প্রথম বিভাগ ফুটবল লীগ গত ১৭ অক্টোবর শুরু হয়ে আগামী ২৯ নভেম্বর শেষ হবার কথা রয়েছে। বুধবার বিকাল তিনটায় রাঙামাটির মারী স্টেডিয়ামে জেলা মুকুল ফৌজের মুখোমুখি হবে প্রতিভাস ক্লাব।

আরো দেখুন

মানিকছড়িতে ছাত্রলীগের শীতবস্ত্র বিতরণ

পাহাড়ে জেঁকে বসেছে শীত। এতে নির্ঘুম রাত কাটাচ্ছে অসহায় দরিদ্র মানুষ। রাতে ঘরে, উঠানে আগুন …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

18 − three =