বান্দরবানলিড

আলীকদমে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে ৭ জনের মৃত্যু

বান্দরবানে ডায়রিয়ার প্রাদুর্ভাব ছড়িয়েছে দশটি গ্রামে

বান্দরবান প্রতিনিধি
বান্দরবানের আলীকদম উপজেলার করুকপাতা ইউনিয়নে তিনটি পাড়ায় ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। প্রচন্ড গরম এবং বিশুদ্ধ পানির সংকটে ডায়রিয়ার প্রাদুর্ভাব ছড়িয়ে পড়েছে দূর্গমাঞ্চলের ১০টি গ্রামে। আজ সোমবার ঘটনাস্থলে দুটি মেডিক্যাল টিম পাঠানো হয়েছে।

স্বাস্থ্য বিভাগ ও স্থানীয়রা জানায়, জেলার আলীকদম উপজেলার করুকপাতা ইউনিয়নের দূর্গম যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন ম্রো জনগোষ্ঠী অধ্যুষিত ইয়ংচা পাড়া, মেনলিও পাড়া, সোনাদি পাড়া, মেনরুং পাড়া, কচ্ছপিয়া পাড়া, আলিশ্যা পাড়া, রুইথং পাড়া, তংরিং পাড়া এবং মাংলুম পাড়া’সহ পাশ্ববর্তী ১০টি পাহাড়ী গ্রামে ডায়রিয়ার প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। বিশুদ্ধ খাবার পানির সংকট এবং প্রচন্ড গরমে প্রায় এক সপ্তাহেরও অধিক সময় ধরে ছড়িয়ে পড়া ডায়রিয়ায় যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন পাড়াগুলোতে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়েছে শিশু, কিশোর বয়স্ক দু’শতাধিকের বেশি নারী পুরুষ। তাদের মধ্যে আলীকদম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে ৭ জনকে ভর্তি করা হয়েছে। রোববার এবং সোমবার দুদিনে পাড়া গুলোতে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে।

করুকপাতা ইউনিয়ন চেয়ারম্যান ক্রাতপু ম্রো জানান, তিনটি পাড়ায় ডায়রিয়ায় ইতিমধ্যে ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এরা হলেন-মেনলিও ইয়ংচা পাড়ার বাসিন্দার রামধন ম্রো, খাইচাং ম্রো, থুংলাক ম্রো, সোনাদি পাড়ার বাসিন্দার জনরুন ত্রিপুরা এবং মাংলুম পাড়া বাসিন্দার মাংধন ম্রো, রেংচং ম্রো, চিংরে ম্রো। এছাড়াও ডায়রিয়া প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়া ইউনিয়নের দশটি পাড়ায় আক্রান্ত হয়েছে দু’শতাধিকেরও বেশি মানুষ।

এদিকে ডায়রিয়া ছড়িয়ে পড়ার খবরে রোববার এবং সোমবার ঘটনাস্থলে ছুটে গেছেন স্বাস্থ্য বিভাগের দুটি মেডিক্যাল টিম। এছাড়াও সেনাবাহিনীর দুটি মেডিক্যাল টিমও ঘটনাস্থলে পৌছেন বলে খবর পাওয়া গেছে। সেনাবাহিনীর সদস্যরা হেলিকপ্টার যোগে মেডিক্যাল টিমের কাছে প্রয়োজনীয় জরুরী ঔষুধ, পানি বিশুদ্ধকরণ ল্যাবলেট এবং খাবার স্যালাইন পাঠিয়েছি আক্রান্ত এলাকাগুলোতে।

পার্বত্য জেলা পরিষদ বান্দরবানের সদস্য ম্রো গবেষক সিইয়ং ম্রো জানান, ম্রো জনগোষ্ঠী অধ্যুষিত করুকপাতা ইউনিয়নে প্রচন্ড গরম এবং বৃষ্টিতে ছড়া-খালের দূষিত হওয়া পানি ব্যবহারের ফলে ব্যাপকভাবে ডায়রিয়া ছড়িয়ে পড়েছে। ডায়রিয়ায় ইতিমধ্যে ৭ জনের মৃত্যুর খবর পেয়েছি। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ঘটনাস্থলে স্বাস্থ্য বিভাগ এবং সেনাবাহিনীর একাধিক মেডিক্যাল টিম পৌছেছেন।

বান্দরবানের সিভিল সার্জন ডাঃ অংসুই প্রু মারমা জানান, প্রচন্ড গরম এবং দূষিত পানি ব্যবহারের কারণে দূর্গম পাড়াগুলোতে এই মৌসুমি ডায়রিয়ার প্রাদুর্ভাব দেখা দেয়। করুকপাতা ইউনিয়নে বেশকয়েকটি পাহাড়ী গ্রামে ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে ৭ জনের মৃত্যুর খবর পেয়েছি। তবে মৃত্যুর প্রকৃত সংখ্যা কত সেটি এখনো নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছেনা। ইতিমধ্যে ঘটনাস্থলে গেছেন স্বাস্থ্য বিভাগ এবং সেনাবাহিনীর চারটি মেডিক্যাল টিম। পরিস্থিতি দ্রুত নিয়ন্ত্রনে আনা সম্ভব হবে আশা করি।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button