প্রবাসে পাহাড়ের মুখব্রেকিংরাঙামাটি

আমিরাত সরকারের সম্মাননা পেলেন রাঙামাটির দুই কৃতী সন্তান

করোনাকালে স্বেচ্ছাসেবী হিসেবে অসাধারন ভূমিকা

সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ের কোভিড-১৯ এর প্রাদুর্ভাবে, লকডাউন এলাকায় সঙ্কটাপন্ন অসহায় প্রবাসী বাংলাদেশিদের সহযোগিতায় আমিরাত সরকারের আহ্বানে স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে কাজ করে বিশেষ সম্মাননা পেয়েছেন বাংলাদেশ কমিউনিটি -১৯ সদস্যের টিম।
১৮ অক্টোবর রবিবার দুবাইয়ে ওয়াতানি আল ইমারাত ফাউন্ডেশনের ম্যানেজিং ডিরেক্টর বেলহোল আল ফালাসি তাদের হাতে সম্মাননা স্মারক ও দুবাই ক্রাউন প্রিন্সের ধন্যবাদ-সম্বলিত বিশেষ ব্যাচ তুলে দেন। এ সময় টিম লিডার মামুনুর রশীদের নেতৃত্বে কিছু সদস্য উপস্থিত ছিলেন।
৩১ মার্চ থেকে আমিরাত সরকারের আহ্বানে সাড়া দিয়ে মানবতার সেবায় স্বেচ্ছাসেবক হিসেবে নিরলসভাবে কাজ করেন আমিরাত প্রবাসী বাংলাদেশি কমিউনিটির ১৯ সদস্যের এই টিম।
এ সময় স্বেচ্ছাসেবক টিমের সদস্যরা দুবাইয়ের লকডাউনস্থ নাইফ, আল রাস, গোল্ড সোক ও আল দাগায়া এলাকায় প্রতিদিন দুবাই সরকারের দেওয়া খাবার করোনায় বিপর্যস্ত প্রবাসী বাংলাদেশিদের মাঝে বিতরণ করার পাশাপাশি অসুস্থ প্রবাসীদের সেবা নেওয়ার ক্ষেত্রে পরামর্শ দেওয়া এবং প্রবাসীদের বিভিন্ন সমস্যার কথা শুনে কর্তৃপক্ষের কাছে জানিয়েছেন।
এছাড়া সরকারের ঘোষিত ‘স্টে হোম’, ‘স্টে সেফ’ ক্যাম্পেইন মেনে চলতেও উৎসাহিত করছেন টিমের সদস্যরা।
মামুনুর রশিদের নেতৃত্বে স্বেচ্ছাসেবক টিমে ছিলেন, মোদাসসের শাহ, আনোয়ার হোসাইন, আবদুল্লাহ আল শাহীন, শামসুন নাহার সপ্না (রাঙ্গামাটি) রুমা খাতুন, মোহাম্মদ জলিল (রাঙ্গামাটি) কাজি ইসমাইল, ফখরুদ্দীন চৌধুরী, মোহাম্মদ মিজান, মোহাম্মদ ইদ্রিছ, মোহাম্মদ মিজানুর, মঞ্জুর মোরশেদ, মোহাম্মদ নুরুল, মোহাম্মদ ইমরান, আনোয়ার আজিম, বাশির চোখদার, মাহামুদ হাছান ফরহাদ, মোহাম্মেদ সাইফ ও মিজানুর রহমান।
MicroWeb Technology Ltd

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button