নীড় পাতা / ব্রেকিং / আবরার হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোভ রাঙামাটি ছাত্রদলের
parbatyachattagram

আবরার হত্যার প্রতিবাদে বিক্ষোভ রাঙামাটি ছাত্রদলের

বুয়েট শিক্ষার্থী আবরার হত্যার প্রতিবাদে রাঙামাটিতে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশে করেছে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল রাঙামাটি জেলা শাখা। সকালে রাঙামাটি পৌরসভা চত্বর থেকে মিছিল নিয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিন করে বনরূপা চত্বরে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল রাঙামাটি জেলা শাখার সহসভাপতি হেলাল উদ্দিনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সমাবেশে বক্তব্য রাখেন জেলা যুবদল সভাপতি সাইফুল ইসলাম শাকিল, জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক সাইফুল ইসলাম পনির এবং জেলা বিএনপির সভাপতি হাজী মোঃ শাহ আলম।

জাতীয়তাবাদী যুবদলের সভাপতি সাইফুল ইসলাম শাকিল বলেন, ‘আওয়ামীলীগ সরকার বাংলাদেশকে ইন্ডিয়ার অঙ্গরাজ্যে রূপান্তর করেছে। এই সরকার অনেকটা মোদি সরকার। প্রধানমন্ত্রীর এই সফরে সব কিছু দিয়ে এসেছে, বিনিময়ে দেশের জন্য আনতে পারেনি কিছুই। দেশের মানুষকে বোকা ভাববেন না, তার সব বুঝতে পারে। জনগণ এখন আর আওয়ামীলীগের সাথে নেই। রাজপথে নেমে এসেছে আন্দোলনের মাধ্যমেই তাদের সকল দাবী আদায় করে নিবে।’

রাঙামাটি জেলা বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট সাইফুল ইসলাম পনির বলেন, সরকার জনগণের বাক স্বাধীনতা হরণ করেছে, মানুষ তার মনের কথাও বলতে পারেনা, বললে তাকে পিটিয়ে হত্যা করে হচ্ছে। কি দোষ ছিল আবরারের, সে যে স্ট্যাটাস দিয়েছে তা বাংলাদেশর ১৭ কোটি মানুষের মনের কথা। তাই বলে এভাবে হত্যা করা হবে। দেশে আইনের শাসন না থাকায় ছাত্রলীগ আজ বেপরোয়া হয়ে উঠেছে। টেন্ডারবাজী থেকে শুরু করে যাবতীয় অপকর্ম করছে। যুবলীগ ক্যাসিনো ব্যাবসার সাথে জড়িয়ে পরেছে, যার প্রমান এ দেশের জনগণ দেখছে। ছাত্র জনতা আজ জেগে ওঠেছে, আসুন আমরা সবাই মিলে অন্দলোন করে দেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনি।’

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপির রাঙামাটি জেলা সভাপতি হাজি মো.শাহ আলম বলেন, দেশে কোন গণতন্ত্র নেই, বাকশালী শাসন চলছে। আজ ছাত্রলীগ, যুবলীগ লাগাম ছাড়া ঘোড়ার মত ত্রাস সৃষ্টি করে বেড়াচ্ছে, সরকার তাদের নিয়ন্ত্রন করতে ব্যার্থ। অথচ আমরা গণতান্ত্রিক আন্দোলন করলে নির্যাতনের শিকার হতে হচ্ছে। সরকার আজ পুরো দেশটাকে টর্চার সেল বানিয়েছে। রাজৈনতিক প্রতিহিংসার কারণে আমাদের নেত্রী বেগম খালেদা জিয়েকে জেলে আটকে রেখেছে। একটি দেশের চার চারবারের প্রধানমন্ত্রীকে এভাবে জেলে আটকে রাখা  রাজনৈতিক শিষ্টাচার বহির্ভূত। অবিলম্বে খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই, সাথে সাথে আবরার হত্যার সাথে জড়িতদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাই।

সমাবেশে জাসাস সভাপতি আবুল হোসেন বালি, রাঙামাটি সদর থানা বিএনপির সভাপতি এডভোকেট মামুনুর রশীদ,জেলা ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক আলী আকবর সুমন উপস্থিত ছিলেন। জেলা ছাত্রদলের যুগ্ম সম্পাদক রাশেদুল   ইসলাম রনির সঞ্চালনায় সমাবেশে আরো উপস্থিত ছিলেন জেলা ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক বেলাল হোসেন সাকু, সদর থানা ছাত্রদলের সভাপতি তারেক হোসেন, সাধারন সম্পাদক ফজলুর রহমান, নগর ছাত্রদলের জাভেদ ইকবাল, কলেজ ছাত্রদলের গালিব হাসান সহ ছাত্রদলের বিভিন্ন ইউনিটের নেতাকর্মীরা ।

Micro Web Technology

আরো দেখুন

বান্দরবান শহর আওয়ামীলীগের নেতৃত্বে অমল-সামশুল

বান্দরবান শহর আওয়ামীলীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে। সম্মেলনে অমল কান্তি দাশ সভাপতি, সম্পাদক পদে সামশুল …

Leave a Reply