করোনাভাইরাস আপডেটব্রেকিংরাঙামাটিলিড

আটশ পরিবারকে চাল কেনার টাকা দিলেন মুছা মাতব্বর

রাঙামাটির আটশ পরিবারকে ১০ টাকা দামের ওএমএস’র ৫ কেজি করে  চাল কেনার টাকা দিয়েছেন রাঙামাটি জেলা আওয়ামীলীগ সাধারন সম্পাদক ও রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ সদস্য হাজী মোঃ মুছা মাতব্বর। রবিবার ছয় শতাধিক পরিবারকে চাল কেনার নগদ টাকা প্রদান করা হয় এবং দুয়েকদিনের মধ্যে আরো দুইশত পরিবারকে দেয়া হবে বলে জানান হাজী মোঃ মুছা মাতব্বর। একই সাথে এই সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

রবিবার সরকারের পক্ষ থেকে দশ টাকায় চাল বিক্রি শুরু হয়েছে। রাঙামাটির নয়টি ওয়ার্ডেও বিক্রি করা হয়েছে এসব চাল। সাম্প্রতিক সময়ে সাধারন লোকজনের অবস্থা চিন্তা করে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। প্রতিজনের কাছে পাঁচ কেজি করে এসব চাল বিক্রি করা হয়। রবিবার সকাল থেকে রাঙামাটির নয়টি ওয়ার্ডে এই চাল বিক্রি করা হয়। তবে নিন্মবিত্ত আটশত লোকজনদের চাল কেনার টাকা দেন জেলা পরিষদ সদস্য হাজী মোঃ মুছা মাতব্বর। রবিবার সকালে রিজার্ভ বাজারের শহীদ আবদুল আলী একাডেমি স্কুল প্রাঙ্গনে চাল কিনতে আসা লোকজনদের মাঝে এই অর্থ বিতরণ করেন তিনি। রিজার্ভবাজারের অন্যান্য এলাকায়ও এই অর্থ বিতরণ করা হয়।
ছাত্রলীগ নেতা সুলতান মাহমুদ বাপ্পার নেতৃত্বে ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী এই টাকা বিতরণ করেন।

জেলা পরিষদ সদস্য হাজী মোঃ মুছা মাতব্বর জানান, দেশের এই দুর্যোগ মুহুর্তে লোকজনদের সহযোগিতা করার সর্বাত্মক চেষ্টা করছি। আজ সকালে লোকজন চাল কিনতে আসলে তাদের চাল কেনার টাকা দিয়েছি। আরো দুই শতাধিক পরিবারের চাল কেনার টাকা দেয়ার চিন্তা রয়েছে। টাকা ঘরে ঘরে পৌঁছে দেয়া হবে বলে জানান তিনি।

তিনি বলেন, সরকার ১০ টাকা মূল্যে ৫ কেজি করে চাল দিচ্ছে। কিন্তু অনেকের এই সামান্য টাকা দেয়ার সামর্থ্যও নেই। তাই তাদের চাল কেনার টাকাটা আমি ব্যক্তিগতভাবে দিয়েছি।

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

Back to top button