রাঙামাটি

আওয়ামীলীগের ভোট ডাকাতির অভিযোগ মিথ্যা: ঊষাতন

রাঙামাটি আওয়ামীলীগের ২০১৪ সালের জাতীয় নির্বাচনে ৫৩ কেন্দ্রে ‘ভোট ডাকাতি’র অভিযোগকে মিথ্যা-বানোয়াট ও ভিত্তিহীন বলে মন্তব্য করেছেন ২৯৯ নং রাঙামাটি আসনের স্বতন্ত্র ও জনসংহতি সমিতির সমর্থিত প্রার্থী ঊষাতন তালুকদার।

তিনি বলেছেন, ‘দশম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে রাঙামাটি আসনে তৎকালীন নির্বাচন কমিশন ও রিটানিং অফিসার ভোট ডাকাতির অভিযোগ আনেননি। বরঞ্চ নির্বাচন শান্তিপূর্ণ, সুষ্টু ও অবাধ হয়েছিল বলে উল্লেখ করেছিলেন। সেখানে দীপংকর তালুকদার তথা ক্ষমতাসীন আওয়ামীলীগের ভোট ডাকাতির অভিযোগ সম্পূর্ণ অসত্য ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত।’

শনিবার বিকালে রাঙামাটির শহরের কল্যাণপুর এলাকায় একটি রেস্টুরেন্টে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব মন্তব্য করেন রাঙামাটির বর্তমান সাংসদ ও জনসংহতি সমিতির সহ-সভাপতি ঊষাতন তালুকদার।

ঊষাতন তালুকদার বলেন, ‘বস্তুত দীপংকর তালুকদার পার্বত্য চট্টগ্রাম চুক্তি পরিপন্থি ও গণবিরোধী ভূমিকার কারণে দশম জাতীয় নির্বাচনে রাঙামাটিবাসী তাঁর বিরুদ্ধে ভোট বিপ্লব ঘটিয়েছিলো। তারা সেই ঘটনাকে ধামাচাপা দেওয়ার জন্যই দীপংকর তালুকদার জনসংহতি সমিতির বিরুদ্ধে এই মিথ্যা ও বানোয়াট ও উদ্দেশ্য প্রণোদিত অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন। যা নির্বাচন আচরণবিধির সরাসরি লঙ্ঘন ও নির্বাচন পরিবেশকে উত্তপ্ত করার সামিল।’

ঊষাতন বলেন, ‘গুম-অপহরণ, গণগ্রেপ্তার, হামলা-মামলা, সাম্প্রদায়িকতা, দুর্বৃত্তরায়ন, দলীয়করণ, লুটপাট, দুর্নীতি, সভা-সমাবেশ ও বাক-স্বাধীনতার ওপর হস্তক্ষেপের কারণে সারাদেশে এক সংকটজনক অবস্থা বিরাজ করছে। অপরদিকে, পার্বত্য চট্টগ্রামে বিরাজ করছে নিরাপত্তাহীন শ^াসরুদ্ধকর নাজুক পরিস্থিতি। শাসকগোষ্ঠীর রাষ্ট্রীয় ক্ষমতার অপব্যবহার, চরম দুর্নীতি, চাঁদাবাজি, টেন্ডারবাজি, দলীয়করণ পার্বত্য চুক্তি বাস্তবায়নে অব্যাহত গড়িমসি, পার্বত্য চুক্তি ও জুম্ম স্বার্থ বিরোধী ষড়যন্ত্র, ফ্যাসিবাদি দমনপীড়নের ফলে রাঙামাটি জেলাসহ সমগ্র পার্বত্য চট্টগ্রামে জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে।’

এ সময় জনসংহতি সমিতির জেএসএস) স্টাফ সদস্য জন চাকমা, স্টাফ সদস্য ও নির্বাচন পরিচালনা কমিটির চীফ এজেন্ট উদয়ন ত্রিপুরা, তথ্য ও প্রচার বিভাগের দিপায়ন খীসা, পাহাড়ি ছাত্র পরিষদের ৯পিসিপি) সভাপতি জুয়েল চাকমা, হিল উইমেন্স ফেডারেশনের রাঙামাটি জেলার সভাপতি রীনা চাকমা প্রমুখ।

MicroWeb Technology Ltd

এই বিভাগের আরো সংবাদ

Leave a Reply

এই সংবাদটি দেখুন
Close
Back to top button