নীড় পাতা / ব্রেকিং / ৩২ দিন পর মুক্তি মন্টি-দয়াসোনার

৩২ দিন পর মুক্তি মন্টি-দয়াসোনার

ইউপিডিএফ সমর্থিত হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মন্টি চাকমা ও রাঙামাটি জেলার সাধারণ সম্পাদক দয়াসোনা চাকমার অপহরণের ঘটনার একমাস একদিনের মাথায় মুক্তি পেয়েছেন তারা। বৃহস্পতিবার রাত আটটার দিকে খাগড়াছড়ি সদরের মধুপুরের এপিবিএন গেট এলাকায় অভিভাবক ও স্থানীয় জনপ্রতিনিধিদের কাছে তাদেরকে মুক্তি দেওয়া হয় বলে জানিয়েছেন ইউনাইটেড পিপল্স ডেমোক্রেটিক ফ্রন্ট (ইউপিডিএফ) এর সংগঠক মাইকেল চাকমা।

মাইকেল চাকমা আরও জানায়, ‘ছাড়া পাওয়ার পর তারা অভিভাবকদের সাথে খাগড়াছড়ি থেকে বাড়ির পথে রওনা দিয়েছেন। এ ঘটনাটি ন্যাক্কারজনক।’

ইউপিডিএফের প্রচার ও প্রকাশনা বিভাগের দায়িত্বরত নিরন চাকমাও বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। নিরন চাকমা জানায়, তাদেরকে রাত আটটার দিকে পরিবার ও জনপ্রতিনিধিদের কাছে মুক্তি দেয়া হয়েছে। এই বিষয়ে এখন আর কিছু বলতে চাই না।

মন্টি চাকমার বড় ভাই সুভাষ চাকমা জানায়, ‘তাদের দুইজনকে বাবা-মা ও জনপ্রতিনিধিদের হাতে তুলে দেয়া হয়েছে এটি নিশ্চিত। তবে বাড়ি না পৌঁছা পর্যন্ত এই বিষয়ে কথা বলতে চাচ্ছি না। বিস্তারিত সকালে জানাবো।’

রাঙামাটির পুলিশ সুপার আলমগীর কবীর ঘটনার সত্যতা জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমরা আপনাদের মাধ্যমেই খবর পেলাম। এ বিষয়ে খোঁজ খবর নিচ্ছি।

এর আগে গত ১৮ মার্চ রাঙামাটির কুতুকছড়ি থেকে সকাল সোয়া নয়টায় হিল উইমেন্স ফেডারেশনের কে›ন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক মন্টি চাকমা ও রাঙামাটির জেলার সাধারণ সম্পাদক দয়া সোনা চাকমাকে অপহরণ করে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনার দয়া সোনা চাকমার বাবা বৃষধন চাকমা বাদী হয়ে ২১ মার্চ রাঙামাটির কোতয়ালি থানায় ১৯ জনের নাম উল্লেখ করে একটি মামলা করেন।

আরো দেখুন

পাহাড়ে রাজনৈতিক দলের কর্মসূচিতে স্কুল শিক্ষার্থীদের ব্যবহার না করার আহ্বান

‘পাহাড়ে আঞ্চলিক রাজনৈতিক দলের সংঘাতপূর্ণ অবস্থার কারণে একের পর এক হত্যার ঘটনা ঘটছে। প্রতিদিনই পড়ছে …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

eleven + one =