নীড় পাতা / পাহাড়ের সংবাদ / বান্দরবান / হেলমেট ব্যবহারকারীদের ফুলের শুভেচ্ছা ও খাওয়ানো হলো মিষ্টি

হেলমেট ব্যবহারকারীদের ফুলের শুভেচ্ছা ও খাওয়ানো হলো মিষ্টি

বান্দরবানে মোটর বাইক ব্যবহারকারীদের হেলমেট ব্যবহারে উদ্ভুদ্ধ করতে ব্যতিক্রমি উদ্যোগ নিয়েছেন প্রশাসন-পুলিশ। বৃহস্পতিবার শহরের ট্রাফিকমোড়ে পুলিশের উদ্যোগে মোটর সাইকেল আরোহী হেলমেট ব্যবহারকারীদের রগনীগন্ধা ও গোলাপ ফুলের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন জেলা প্রশাসক মো: আসলাম হোসেন। আইন মেনে হেলমেট ব্যবহার করায় ব্যবহারকারীদের মিষ্টি খাইয়েছেন পুলিশ সুপার জাকির হোসেন মজুমদার।
এসময় অন্যদের মধ্যে পুলিশ অফিসার মোহাম্মদ বাচা মিয়া, ট্রাফিক পুলিশের অফিসার মো: মামুন’সহ ট্রাফিক পুলিশের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।
জেলা প্রশাসক মো: আসলাম হোসেন বলেন, নিজের নিরাপত্তা এবং দূর্ঘটনা রোধে মোটর সাইকেল আরোহীদের হেলমেট ব্যবহার করা প্রয়োজন। মানুষের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করেই হেলমেট ব্যবহারে জনসচেতনতা তৈরি করতে আমাদের এ উদ্যোগ। জনগনকে হয়রানী করার উদ্দেশ্যে নয়। সকলে আইন মেনে চললে অপরাধ কর্মকান্ড অনেকাংশে কমে যাবে। আসুন আমরা আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হই এবং অন্যকে আইন মেনে চলতে পরামর্শ দেই। তাহলে দ্রুত এগিয়ে যাবে সোনার বাংলাদেশে।
পুলিশ সুপার জাকির হোসেন মজুমদার বলেন, হেলমেট ব্যবহারকারীদের ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হচ্ছে। হেলমেট ব্যবহারে জনগনকে উদ্ভুদ্ধ করা হচ্ছে। তারপরও যারা আইন মানছেনা, তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। ট্রাফিক পুলিশের আইনেই হেলমেট ব্যবহার না করার সুনিদিষ্ট জরিমানা-শাস্তি রয়েছে। একাধিকবার বলার পরও যারা হেলমেট ব্যবহার করছেননা, এমন ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। এ পর্যন্ত শতাধিক বাইক মালিকের বিরুদ্ধে মামলা করে জরিমানা আদায় করা হয়েছে। অন্যদের প্রথমত সতর্ক করা হচ্ছে এবং হেলমেট ক্রয় করে আনার পর ছেড়ে দেয়া হচ্ছে। কদিনের কড়াকড়িতে শতকরা ৯৫% বাইক আরোহী হেলমেট ব্যবহার শুরু করেছেন। এটি পুলিশের একটি অর্জন। এ অভিযান অব্যাহত থাকবে।

আরো দেখুন

ক্যান্সারের কাছেই হেরে গেলেন সাংবাদিক মোস্তফা কামাল

দীর্ঘদিন ধরে মরণব্যাধি ক্যান্সারের সাথে লড়াই করে অবশেষে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়লেন রাঙামাটির সাংবাদিক, বিশিষ্ট …

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

4 − 2 =