কৃতি শিক্ষার্থী সম্বর্ধনা ও অভিভাবক সমাবেশে

‘সন্ত্রাসীদের কোন ধর্ম, বর্ণ ও জাত নেই’ : কংজরী চৌধুরী


নিজস্ব প্রতিবেদক, মাটিরাঙ্গা প্রকাশের সময়: এপ্রিল 9, 2018

‘সন্ত্রাসীদের কোন ধর্ম, বর্ণ ও জাত নেই’ : কংজরী চৌধুরী

যারা চাঁদাবাজি করে তারা চাঁদাবাজ, যারা অবৈধ অস্ত্র নিয়ে সন্ত্রাসী কর্মকান্ড করে তারা সন্ত্রাসী। এসব চাঁদাবাজ ও সন্ত্রাসীদের পরিহার করার আহবান জানিয়ে খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী বলেছেন, পার্বত্য চট্টগ্রামের স্বাধীনতা ও স্বাধিকার গনমানুষের দাবী নয়। এটা বিশেষ একটি মহলের দেখা মিথ্যা স্বপ্ন। ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে স্বাধীনতা লাভের পরে এদেশে আর কোন স্বাধীনতা হতে পারেনা। তিনি বলেন, এসব অস্ত্রধারী সন্ত্রাসীরা আমাদের বন্ধু হতে পারেনা। তিনি বলেন, যারা প্রচার করেন পার্বত্য চট্টগ্রাম থেকে বাঙ্গালীদের চলে যেতে হবে তাদের এসব বক্তব্য ভুয়া ও ভিত্তিহীন। আমরা একই মায়ের অভিন্ন সন্তান হিসেবে পাহাড়ের সম্প্রীতির বাগান তৈরী করেছি। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এ সম্প্রীতি অটুট থাকবে।

মাটিরাঙ্গা সদর ইউনিয়নের ইচাছড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তিনতলা ভবনের নির্মান কাজের উদ্বোধন শেষে অনুষ্ঠিত কৃতি শিক্ষার্থী সম্বর্ধনা ও অভিভাবক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মাটিরাঙ্গা সদর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান হিরনজয় ত্রিপুরার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় মাটিরাঙ্গা পৌরসভার মেয়র মো: শামছুল হক, মাটিরাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিভীষণ কান্তি দাশ, মাটিরাঙ্গা উপজেলা সহকারী প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার কৃষ্ণলাল দেবনাথ ও মাটিরাঙ্গা উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক সুবাস চাকমা বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন।

সন্ত্রাসীদের উপজাতীয় সন্ত্রাসী হিসেবে গণমাধ্যমে প্রকাশ না করতে সাংবাদিকদের প্রতি আহবান জানিয়ে তিনি বলেন, সন্ত্রাসীদের কোন ধর্ম, বর্ণ ও জাত নেই। তারা শুধুই সন্ত্রাসী। সন্ত্রাসীরা কখনো পাহাড়ী বা বাঙ্গালী হতে পারেনা। বর্তমান সরকারকে শিক্ষা বান্ধব সরকার দাবী করে তিনি বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রাথমিক বিদ্যালয়কে সরকারী করণের মতো সাহস দেখিয়েছেন। যা আর কোন সরকার করেনি। তিনি বলেন, শেখ হাসিনা দীক্ষা মান সম্মত শিক্ষা এ শ্লোগানকে অন্তরে ধারন করে সর্বত্র শিক্ষার আলো জ¦ালাতে হবে।

মাটিরাঙ্গা উপজেলা সহকারী প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার কমল জ্যোতি চাকমা, মাটিরাঙ্গা পৌরসভার ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো: এমরান হোসেন, ২নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর মোহাম্মদ আলী, সাবেক কাউন্সিলর মো: সাইফুল ইসলাম বাবু, নতুনপাড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কীর্তি ত্রিপুরা, সহকারী প্রাথমিক শিক্ষক সমিতির সাধারন সম্পাদক মো: মাসুদ পারভেজ, মাটিরাঙ্গা সদর ইউনিয়ন পরিষদের ৪নং ওয়ার্ডের মেম্বার সুমন ত্রিপুরা ও ১নং ওয়ার্ডের মেম্বার মলেন্দ্র বিকাশ ত্রিপুরা প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে ইচাছড়া সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো প্রাথমিক বৃত্তি লাভ করায় অঞ্জলী ত্রিপুরাকে পাঁচ হাজার টাকা উৎসাহ অনুদান প্রদান করেন খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী।

এর আগে তিনি ইচাছড়া জয়কালী রক্ষাকালী মন্দিরের নাথ মিন্দর পরিদর্শন শেষে নির্মান কাজের ভিত্তিপ্রস্থর স্থাপন করে খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী এমন উদ্যোগের জন্য স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান হিরনজয় ত্রিপুরাকে ধন্যবাদ জানান।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Top advertise


এই সংবাদটিতে আপনার মতামত প্রকাশ করুন

avatar
  Subscribe  
Notify of