শিক্ষক ডেপুটেশন বাতিলের ইঙ্গিত জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের


॥ মোঃ মোস্তফা কামাল ॥ প্রকাশের সময়: নভেম্বর 16, 2017

শিক্ষক ডেপুটেশন বাতিলের ইঙ্গিত জেলা পরিষদ চেয়ারম্যানের

আগামী ২০১৮ সালের জানুয়ারি থেকে রাঙামাটি পার্বত্য জেলার প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগের বহুল আলোচিত শিক্ষক ডেপুটেশন প্রথা বাতিলের বিষয়ে ইঙ্গিত দিয়েছেন রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষকেতু চাকমা। শিক্ষকদের ডেপুটেশন প্রথাটিকে তিনি প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থার জন্য ক্ষতিকারক হিসেবে উল্লেখ করে বলেছেন, এক বিদ্যালয়ে নিয়োগপ্রাপ্ত শিক্ষক অন্য বিদ্যালয়ে এসে শিক্ষকতা করবেন সেটা গ্রহণযোগ্য হতে পারে না।

১৩ নভেম্বর রাঙামাটি ক্ষুদ্র নৃ গোষ্ঠী সাংস্কৃতিক ইনস্টিটিউট মিলনায়তনে ৪র্থ শ্রেণির জেলা পরিষদ বৃত্তি বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। জেলা পরিষদের সদস্য অংসুই প্রত চৌধুরী, ত্রিদীপ শান্তি দাশ, অমিত চাকমা রাজু, মনোয়ারা আক্তার জাহান, শান্বনা চাকমা সহ জেলা প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগের শীর্ষ স্থানীয় কর্মকর্তারা এই সময় উপস্থিত ছিলেন।

পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষকেতু চাকমা তাঁর বক্তব্যে জানান, রাঙামাটি পার্বত্য জেলার প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগে বিভিন্ন বিদ্যালয়ে শিক্ষকদের ডেপুটেশন এবং বর্গা শিক্ষক নিয়ে বেশ অভিযোগ রয়েছে। এর ফলে এখানকার প্রাথমিক শিক্ষা ব্যবস্থার ক্ষতি হচ্ছে। এটি কাম্য হতে পারে না।

ডেপুটেশনরত শিক্ষক শিক্ষিকা প্রসঙ্গে চেয়ারম্যান বলেন, বিদ্যালয়ে শিক্ষকদের প্রয়োজনীয়তা ও চাহিদার কথা বিবেচনা করেই শিক্ষক নিয়োগ দেয়া হয়। কিন্তু ডেপুটেশনের নামে শিক্ষক শিক্ষিকারা সেই বিদ্যালয়ের পরিবর্তে অন্যত্র তাদের সুবিধামতো বিদ্যালয়ে চলে আসেন। ফলে সেই সব বিদ্যালয়ে পুনরায় শিক্ষক সংকট দেখা দেয় পাশাপাশি যেসব বিদ্যালয়ে ডেপুটেশন দেওয়া হয় সেখানেও তাদের দায়িত্ব পালনের বিষয়ে নানান অসঙ্গতির কথা শোনা যায়।

রাঙামাটি পার্বত্য জেলায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়সমূহে বর্গা শিক্ষকের বিষয়টি উল্লেখ করে পরিষদ চেয়ারম্যান ক্ষোভের সাথে বলেন, এখানো এখানে বর্গা শিক্ষকতার অভিযোগ পাওয়া যায়। এটি দুঃখজনক। যারা নিজ নিজ বিদ্যালয়ে বর্গা শিক্ষকদের নিয়োজিত করে নিজেরা ঘরে বসে থাকেন তাদের প্রতি তিনি বলেন, আপনারা এর মাধ্যমে জাতির সাথে বেইমানি করছেন। আপনাদের প্রতি মাসে যে বেতন দেয়া হয় জনগণের টাকায়। আপনারা ধর্মীয়ভাবেও অন্যায় করছেন। সৃষ্টিকর্তার কাছে আপনারা অভিশপ্ত।

বৃত্তি বিতরণী অনুষ্ঠানে পরিষদ চেয়ারম্যান জানান, রাঙামাটি জেলার প্রাথমিক শিক্ষা বিভাগের নানা বিষয়। ডেপুটেশন প্রথা বাতিল করা শিক্ষক দমনের বিষয়ে জানুয়ারী মাসে পরিষদের বিশেষ সভা করে এই সব ব্যাপারে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। পাশাপাশি বিভিন্ন বিদ্যালয়ে কর্মরত শিক্ষক শিক্ষিকাদের দায়িত্ব পালনের বিষয়েও মনিটরিং করার ব্যবস্থা জোরদার করা হবে ।

সাম্প্রতিক সময়ে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষকদের ডেপুটেশন, বর্গা শিক্ষকসহ শিক্ষকদের গুণগত মান নিয়ে ব্যাপক আলোচনা হচ্ছে। ৭ম শ্রেণির বৃত্তি বিতরনী অনুষ্ঠান, সমবায় দিবসের আলোচনা সভায়ও এই বিষযে জেলা প্রশাসক বক্তব্য রাখেন। তা ছাড়া বিভিন্ন অনুষ্ঠানেও জেলা পরিষদের মাধ্যমে নিয়োগকৃত শিক্ষক শিক্ষিকাদের নিয়োগের বিষয়ে বিভিন্ন অভিযোগ উত্থাপন করা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, রাঙামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের কাছে ন্যস্ত জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস এবং জেলার প্রাথমিক বিদ্যালয়সমূহে শিক্ষক নিয়োগ, পদায়ন, বদলিসহ অন্যান্য বিষয়েগুলোর দেখভালের দায়িত্ব জেলা পরিষদের।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Top advertise


এই সংবাদটিতে আপনার মতামত প্রকাশ করুন

avatar
  Subscribe  
newest oldest most voted
Notify of
Ripon Chakma
Guest

স্যার শিক্ষার স্বার্থে সব ডেপুটেশান বাতিল করা ইউক।

Ananda Thanchangya
Guest

চেয়াম্যান স্যার সঠিক সিধান্ত। শিক্ষার স্বার্থে ডেপুটেশন বাতিল করা দরকার

Md Azad
Guest

বাস্তবায়ন করলে শিক্ষা খাতে সফলতা আসবে আশা করা যায়,স্যার মহোদয়কে ধন্যবাদ।