নীড় পাতা / ব্রেকিং / রাঙামাটি মহিলা কলেজে ২১টি মোবাইল জব্দ

রাঙামাটি মহিলা কলেজে ২১টি মোবাইল জব্দ

কঠোর নিয়ম শৃঙ্খলার মধ্য দিয়ে রাঙামাটি সরকারি মহিলা কলেজের কার্যক্রম পরিচালিত হয়ে থাকে। নির্দিষ্ট সময়ে ক্যাম্পাসে প্রবেশ আর ছুটির ঘন্টার আগে ক্যাম্পাস ত্যাগে রয়েছে কঠোর কড়াকড়ি। মোবাইল ব্যবহারতো সেই আগে থেকেই নিষিদ্ধ। পড়ালেখা ও ক্লাশ নিয়মিত করার জন্যই মূলত কলেজ কর্তৃপক্ষ ক্যাম্পাসে ছাত্রীদের মোবাইল ব্যবহারে নিষেধ্বাজ্ঞা আরোপ করেছিল। তারপরেও চোর না শুনে ধর্মের কাহিনী। প্রায় প্রতিদিনই কিছু ছাত্রী ক্যাম্পাসে শিক্ষকদের ও ক্লাস ফাঁকি দিয়ে মোবাইল ব্যবহার করে। তিনতলায় কিংবা লাইব্রেরিতে গিয়ে ঘন্টার পর ঘন্টা কথা বলা কিংবা ফেইসবুকে চ্যাট করা নিত্যনৈমিত্তিক ব্যাপার হয়ে দাঁড়িয়েছিল। একজনের মোবাইলে ভাগ বসায় বান্ধবিরাও। ফলে একটি মোবাইল একাধিকজনে ব্যবহার করতে গিয়ে ক্লাসের সময়ও পেরিয়ে যায় প্রায়শ। ছাত্রীদের এমন হেয়ালিপনার কারণে গতবছর এইচএসসি’র ফলাফলেও বিপর্যয় ঘটেছে। ক্লাস ফাঁকি দিয়ে মোবাইল ব্যবহারের বিষয়টা শিক্ষকরাও আঁচ করতে পেরেছিলেন। চোরের দশদিনতো গেরস্তের একদিন।

বৃহস্পতিবার কলেজ কর্তৃপক্ষ চিরুনি অভিযান চালায়। তিনতলা ও লাইব্রেরি ভবনে ক্লাশ ফাঁকি দেয়া ছাত্রীদের কাছ থেকে জব্দ করে ২১টি মোবাইল ফোন।

কলেজের সহকারি অধ্যাপক মোঃ রবিউল হোসেন রবি তাঁর ফেইসবুকে বিষয়টি নিয়ে স্ট্যাটাসও দেন। ক্লাস ফাঁকি দিয়ে মোবাইল ব্যবহারে লাভের চেয়ে ক্ষতিই বেশি হয় বলে মন্তব্য করেন তিনি।

আরো দেখুন

নানিয়ারচরে দুই ইউপিডিএফ কর্মীকে গুলি করে হত্যা

‘দলত্যাগ’ করে ইউপিডিএফ-এ যোগ দেয়ার ‘অপরাধে’ দুই কর্মীকে হত্যা করার অভিযোগ উঠেছে সংস্কারপন্থী হিসেবে পরিচিত …

31 মন্তব্য

  1. মোবাইল গুলো নিলামে বিক্রি করা হোক!! হা হা হা

  2. কত দিন চলবে এই নিয়ম না হয় এক মাস?

  3. এটা কোন ধরনের নিয়ম? ওরা এখনো ক্লাশ ৮- ৯ নাকি? বাংলাদেশে কোন কলেজে বা বিশ্ববিদ্যালয়ে এ নিয়ম আছে। আজব।

    • শিক্ষার্থীদের ভালোর জন্য কলেজ প্রশাসন এ ধরণের সিদ্ধান্ত নিতেই পারেন।আপনি মনে হয় শিক্ষার্থীদের মোবাইল ফোন ব্যবহারের ক্ষতিকর দিক সম্পর্কে ওয়াকিবহাল নন!

    • ১৮-১৯ সলের মধ্য স্কুল- কলেজ – বিশ্ববিদ্যালয়ে মাল্টিমিডিয়া ক্লাস রুম হবে। বতমানে হচ্ছে ও। আজকাল ট্যাব নিয়ে ক্লাস করে। আমাকে দেখান কোন কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ে এ নিয়ম আছে। ইডেন কলেজ বাংলাদেশে ভাল মানের কলেজ ওখানেতো এরকম নিয়ম নেই।

  4. শুধু মোবাইল জব্দ কেন তাদেরকে ভর্তি বাতিল করে হোস্টেল থেকে বাহির করে দেওয়া দরকার

  5. কলেজ কর্তৃপক্ষের উচিত ক্লাশে প্রবেশ করার সময় চেকিং করা,তাহলে হয়ত ক্লাশে মোবাইল ব্যাবহার অনেক হারে কমবে

  6. নিয়মকানুন কঠোর হলে এত বছরে মাত্র ২১ টি মোবাইল ফোন কেন? এগুলো কত বছরের জব্দ করা ফোন নাকি ২০১৭ সালে জব্দ করা ফোন উল্লেখ নাই কেন?

  7. প্রফেসার সাহেব,খুব ভাল কাজ করেছেন,ধন্যবাদ জানাই স্যারকে,কারন অভিভাবক অনেক কষ্ট করে মেয়ের সুখের জন্য পড়া লেখা শিখা ছেন,বিয়ে হয়ে গেলে ও স্বামীর নির্ভর হয়ে থাকতে না হয়,সেজন্য তিনি নিজের পায়ে দাড়ানোর একটি ব্যবস্তা। সেদিকে লক্ষো রেখে স্যার যা করেছেন খুব ভাল কাজ করেছেন,এখন তো বুঝেন মেয়েদের মোবাইল ব্যবহারে কত বড় বিপদ গ্রস্ত, ধারালো তলোয়ারের চেয়ে জুকি,প্রকৃতির ডাকে কখন কোথায় কি বিপদ হচ্ছে,যা কিছু প্রকাশ পেলেও হাজার হাজার নারী নিরবে মেনে নিতে হচ্ছে,অকালে পড়া লেখা বাদ দিয়ে পিতা মাতার অমতে বিয়ের প্রলোভনে প্রকৃতি ডাকে সুন্দর জিবন নষ্ট হয়ে যাচ্ছে।

    • ধন্যবাদ!
      আপনারা অভিভাবকরা একটু সচেতন হলে রাঙ্গামাটি সরকারি মহিলা কলেজের সার্বিক উন্নয়ন সাধন ত্বরান্বিত করা যাবে। আশা করি সবসময় আপনাদের সাহায্য ও সহযোগিতা পাবো।

  8. পর্যায়ক্রমে রাংগামাটির সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এই ধরনের অভিযান পরিচালনা করার জন্য যথাযথ কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি ।

  9. really ai kaz ta onek valo hoice shudu rangamati na sara bangladesh a amon ovijan chalano uchit

  10. জব্দ করার আগে সতর্ক করা দরকার ছিল ।

  11. এই অভিযান চলমান থাকুক।

  12. টিক হইছে।কারন মা বাবা টাকা খরচ করছে লেখাপড়া শিক্ষা নিবার জন্য।মোবাইলে কথা বলার জন্য না

  13. এখন প্রেমিকের কাজ থেকে 3G-4G মোবাইল কিনে দিতে হবে আর কি!!!

  14. E gulo bikri kore madaesudera mal kabe…….. Baler sikka bebosta college tu noi jeno school. madarsud der jonnu Gf ke 10,000 tk new phone 1ta kine dite holo….

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

eighteen − ten =