রাঙামাটির তিসার গানে ফেসবুকে ঝড়


প্রকাশের সময়: সেপ্টেম্বর 13, 2017

রাঙামাটির তিসার গানে ফেসবুকে ঝড়

দুটো ছোট্ট ভিডিও। একটার স্থায়ীত্ব ৩ মিনিট ২২ সেকেন্ড। অন্যটা একেবারেই মিনিটের আশেপাশে-১ মিনিট ৮ সেকেন্ডের। হাতে গিটারের ঝড়, দরাজ কণ্ঠ আর স্পষ্ট উচ্চারণে প্রথম ভিডিওটাতে মেয়েটার গলা শোনালো তাহসানের গাওয়া সেই গান-‘তুমি আর তো কারও নও, শুধু আমার’, আর পরেরটাতে উপমহাদেশের প্রখ্যাত শিল্পী কিশোর কুমারের গাওয়া-‘যাব কই বাত বিগার যাযরে।’

বন্ধুবান্ধবের গণ্ডি পেরিয়ে মেয়েটির গাওয়া এই দুটি গান যখন প্রথমবারের মতো ফেসবুকের পর্দায় ভেসে এল, অনলাইন জগত শুনল মন্ত্রমুগ্ধ এক কণ্ঠ। শুনল একটি নাম-তিসা দেওয়ান।

এই দুটি গানের কল্যাণে রাঙামাটির ভালেদী আদাম এলাকার ‘অখ্যাত’ উচ্চমাধ্যমিক পড়ুয়া মেয়েটা এখন যেন ‘বড়’ তারকা। অন্তর্জালে বারবার আসছে একটাই অনুরোধ ‘তিসা আরেকটা গান শোনাও না’!

৩১ আগস্ট দুপুর ১২টা ২ মিনিটে তিসার গাওয়া দুটি গানের ভিডিও ফেসবুকে আপলোড করেন তার পরিচিত কৃষ্ণ চাকমা নামের এক তরুণ। মঙ্গলবার রাত ৮টা পর্যন্ত ফেসবুকে তিসার গাওয়া-‘তুমি আর তো কারও নও, শুধু আমার’ গানটি শুনেছেন ৫ লাখ ৩৯ হাজার ১১৯ জন, আর ‘যাব কই বাত বিগার যাযরে’ শুনেছেন ১ লাখ ১৩ হাজার ৯৭৫ জন !

শুধু কি তাই? ‘তুমি আর তো কারও নও, শুধু আমার’ গানটি গাওয়ার কল্যাণে তিসা ইতিমধ্যেই নজরে চলে এসেছেন গানটির মূল ‘¯্রষ্টা’ তাহসানের-ও। তাহসান নিজের ব্যক্তিগত ফেসবুক অ্যাকাউন্টে শেয়ার করেছেন তিসার গাওয়া গানটি। ৭ সেপ্টেম্বর গ্রামীণফোন হাউজে নিজের নতুন অ্যালবাম ‘অভিমান আমার’ এর আনুষ্ঠানিক প্রকাশনা অনুষ্ঠানেও বড় পর্দায় শোনেন তিসার গলায় গাওয়া গানটি।

কথা হয় কৃষ্ণ চাকমার সঙ্গে। তিনিই প্রথম ফেসবুকে তিসার গাওয়া গান দুটো আপলোড করেন।

কৃষ্ণ বলেন, ‘তিসা ভালো গান করে এটা শুধু আমাদের মাঝেই সীমাবদ্ধ ছিল। আমি চেয়েছিলাম ওর প্রতিভাটাকে সবার কাছে জানিয়ে দিতে। এ থেকেই তার গাওয়া গান দুটির ভিডিও ফেসবুকে আপলোড করি।’

তিসার কথায়, ‘কখনও ফেসবুকে গান দেইনি। সময় কাটাতে প্রথমবারের মতো গানগুলোর ভিডিও রেকর্ড করে ফেসবুকে ছেড়ে দেওয়া। কিন্তু এতে এতো সাড়া পাবো, মানুষের এতো ভালোবাসা-প্রশংসা পাবো ভাবিনি। জীবনটা যেন নতুন করে শুরু হলো। পেছনে ফিরে তাকালে মনে হয়-কি থেকে কি হয়ে গেল। এই কয়েকটা দিন যেন স্বপ্নের মধ্যে দিয়ে চলে গেছে। নিজেকে এখন আমি বলতে পারছি-আমি পারবোই। ’

গিটারে তার ‘আধিপত্যর’ কথা তো আগেই বলা হলো। তবে শুনতে আশ্চর্য লাগলেও তিসার বক্তব্য, ‘মাত্র চারদিনে গিটার শিখেছি।’

বাংলা-হিন্দি গানের সঙ্গে তিসা গলায় বেশ দখল আছে চাকমা গানও। চাকমা পরিবারে জন্ম। তাই তার বড় ইচ্ছে-নিজেদের ঐতিহ্যকে পুরো বিশ্বের কাছে পৌঁছে দেওয়া। সেই থেকেই চাকমা গানের প্রতি তার আলাদা দরদ।

অনেকেই স্বপ্নের শেষ বোঝাতে বলেন-‘স্কাই ইজ দ্যা লিমিট।’ তিসার স্টেশনটা যেন আরও ‘দূরে’! নিজেকে কোথায় দেখতে চান এমন প্রশ্নের জবাবে যে উত্তর এলো-‘গান নিয়ে যতদূর যাওয়া যায়, ততদূরেই যেতে চাই।’

রাঙামাটি শহরতলীর ভালেদী আদামি এলাকার এক সাদামাটা পরিবারে জন্ম তিসা দেওয়ানের। প্রতি মোহন দেওয়ান আর নিরুপা দেওয়ান দম্পতির তিন কন্যার সবচেয়ে ছোটজন তিসা। বড় দুই বোন বাবলী দেওয়ান ও শ্রাবন্তি দেওয়ান বিয়ে করে সংসারী। তাই বাড়ির ছোট মেয়েটিকে নিয়েই আপাতত সমস্ত স্বপ্ন বাবা-মায়ের। তিসার ছোটকাল থেকেই গান-আবেগের স্বপ্নসঙ্গী এই দুটো মানুষ। রানী দয়াময়ী উচ্চ বিদ্যালয়ের ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগ থেকে এসএসসি পাস করার পর তিসা বর্তমানে রাঙামাটি সরকারি কলেজে একই বিভাগে একাদশ শ্রেণিতে অধ্যয়নরত।

তিসা জানান, ২০১২ সাল থেকেই তার গান শেখা শুরু। প্রথমে স্থানীয় শিল্পী হিরা চাকমার কাছে গান শেখেন। এখন শিল্পকলা একাডেমিতে নিয়মিত যাওয়া হয় গান শেখার তাগাদায়। তিসা দেওয়ান অনেকে ইতিমধ্যে দিয়ে দিয়েছেন বড়সড় সার্টিফিকেট- ‘একদিন এই মেয়েটা নাম করবে, হবে বড় শিল্পী।’ গান নিয়ে কাজ করার জন্য প্রস্তাবও চলে এসেছে এক-দুটো। তবে এতোকিছুর পরেও তিসার পা মাটিতেই আছে। এখনি ‘বড় হওয়ার’ তাড়া নেই তার। বাইরের পরিবেশে নিজেকে উন্মুক্ত করে দেবার আগে রাঙামাটির সবুজ পরিবেশে আরও দুটো বছর শিখতে চান গান। এইচএসসি পাস করার পর ভর্তি হতে চান কোনো বিশ্ববিদ্যালয়ে। এবং অবশ্যই পড়তে চান সংগীত নিয়ে। তারপর গানের বড় জগতে ঢুকতে চান তিনি।

ফেসবুকে টাইমলাইনের শুরুতে এখন অপশন আছে। ইন্ট্রো নামের ওই অপশনে মানুষ কয়েক লাইনে তার সম্পর্কে জানায় ‘ফেসবুকবাসীকে’।

সেখানে তিসা দেওয়ান কি লিখবেন তা তো অনুমেয়ই। মেয়েটা সেখানে লিখেছেন ‘অনলি মিউজিক অ্যান্ড নাথিং টু সে’।

গান যার গলার ভাষা-তিনি এর বাইরে ভিন্ন কিছু কেনই বা লিখবেন?

 

(জনপ্রিয় অনলাইন ‘বাংলানিউজ’-এ প্রকাশিত প্রতিবেদনটি আমাদের পাঠকদের জন্য শেয়ার করা হলো )

সংবাদটি শেয়ার করুন

Top advertise


এই সংবাদটিতে আপনার মতামত প্রকাশ করুন

Notify of
avatar
Sort by:   newest | oldest | most voted
Hira Chakma
Guest

One of my favourite student. Always pray for her everybody. Just go ahead Tisha. You will be win. Bless u for all time. Good wish and good luck for u.

Toma Rinku Chakma
Guest

Link ta paina Ektu suntam song ta Ufffffffffffffffffffffffffffff sudu jowr jowr…….

Barbi Doll
Guest

Meyeta jeno kothai powchocche! Asolei kew kawke dhore rakte pare na jodi tar valo parfomme’s hoi,,,,agiye jaw “Tisha”amra tomar sathe achi and thakbo Good bless

Biddut Joy
Guest

Nice

Amar Chakma
Guest

tnx

ফরিদা ইয়াসমিন নুপুর
Guest

লিংক টাকি পাওয়া যাবে😊

wpDiscuz